খেলার সময় ফাস্ট বোলার আফ্রিদি, পাকিস্তানের মিচেল স্টার্ক

১৬-০১-২০১৮, ২১:৩৯

মামুন শেখ

fb tw
ফাস্ট বোলার আফ্রিদি, পাকিস্তানের মিচেল স্টার্ক
শহীদ আফ্রিদিকে কে না চিনে। পাকিস্তানের এ সুদর্শন ক্রিকেটার তার ঝড়ো ব্যাটিং আর আগুন ঝরানো লেগস্পিনের জন্য আইকনিক ফিগার। জাতীয় দলের জার্সি খুলে রেখেছেন বেশ কিছুদিন হলো। তবে সবুজ জার্সিতে ২২ গজে আবির্ভাব ঘটেছে আরেক আফ্রিদির। নাম শাহীন শাহ আফ্রিদি। তবে এই আফ্রিদির ভূমিকা ভিন্ন। পুরাদস্তুর পেসার। ব্যাটিংয়ের ধার তেমন ধারেন না। বোলিংয়ের স্টাইলটা কিছুটা পূর্বসূরি কিংবদন্তী ওয়াসিম আকরামের মতো। তবে অস্ট্রেলিয়ার বাঁহাতি পেসার মিচেল স্টার্কের অ্যাকশনের সঙ্গে মিলটা বেশি।
পাকিস্তান অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ দলের সদস্য। টুর্নামেন্টে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ৬ উইকেট নিয়ে বার্তা দিয়ে রেখেছেন ভবিষ্যতে আরও বড় মঞ্চ মাতানোর।
শাহীন শাহ'র বিশেষত্ব শুধু তার নাম কিংবা খেলাতেই নয়, শারীরিক গঠনও অন্যদের থেকে আলাদা করেছে এ পেসারকে।
আপনার উচ্চতা কত? '৬ ফুট ৫ ইঞ্চি। সবাই প্রথমেই আমাকে এই প্রশ্নটাই করে।' ক্রিকেট বিষয়ক ওয়েবসাইট ক্রিকবাজের সঙ্গে সাক্ষাৎকারে মুচকি হেসে বলছিলেন শাহীন শাহ। 'আমরা পাঠান, আমাদের এমন (লম্বা হবার) প্রবণতা আছে।' যোগ করেন তিনি।
নিজের আলোতেই উদ্ভাসিত হবার সবগুণ আছে ১৭ বছর বয়সী এই তরুণের। তারপরেও নামটা যে আফ্রিদি। সংযোগটা ওইখানেই। ক্রিকেট বিশ্বে এই নামের জায়গাটা আগে আগে থেকেই স্বমহিমায় উজ্জ্বল। তাই স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্নটা এসেছে। আফ্রিদি নামটাকে কিভাবে ব্যাখ্যা করবেন?
'আফ্রিদি পাঠানদের একটা উপবংশের নাম। আর সেখান থেকেই এই নামটা এসেছে।'
ইউটিউবে শাহীনের একটি ভিডিও প্রকাশের পর ক্রিকেটপ্রেমীদের মধ্যে বেশ হইচই পড়ে যায়। ভিডিওটিতে তার বোলিং নৈপুণ্য নজর কাড়ে সবার।
পাকিস্তান-আফগানিস্তান সীমান্তবর্তী খাইবার পাসের নিকটবর্তী উত্তর-পশ্চিম সীমান্তের ফাতা প্রদেশ থেকে উঠে এসেছেন শাহীন। শহীদ আফ্রিদির সঙ্গে হয়তো সরাসরি সম্পর্ক নেই। তবে পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেটার রিয়াজ আফ্রিদির ছোট ভাই শাহীন। পাকিস্তানের হয়ে একটি টেস্টে মাঠে নেমেছেন রিয়াজ।
'ভাই যখন একজন টেস্ট ক্রিকেটার হবে তখন আপনাকে সেটা সাহায্য করবে। আমি তার সঙ্গে প্রায়ই মাঠে যেতাম। আর এভাবেই আমার ক্রিকেট খেলা শুরু, যেমনটা শুরু করে পাকিস্তানের অন্য সব খেলোয়াড়রাও। আমরা উপত্যকা এবং পাহাড়ের মাঝে খোলা জায়গায় খেলতাম। পেশোয়ারের মতো শহরের সুযোগ সুবিধা আমাদের ছিলো না।'
যে দীর্ঘ শারীরিক গঠনের জন্য পেস বলে বাড়তি সুবিধা পাচ্ছেন শাহীন সেটা নিয়েও দিলেন চমকপ্রদ তথ্য।
'এটা খুবই হাস্যকর। আমি আমার বন্ধু প্রতিবেশী ছেলেদের তুলনায় বেশি লম্বা ছিলাম না। গত ২-৩ বছরে আমি হঠাৎ বেড়ে উঠেছি।'
তবে লম্বার হবার পরেই ফাস্ট বোলার হবার ইচ্ছা জাগেনি, বরং আগে থেকেই ২২ গজে ঝড় তুলতে চান, আগুণ ঝরানো ইয়র্কারে স্ট্যাম্প ভাঙতে চান এ পাঠান তরুণ।
সূত্র: ক্রিকবাজ

করোনা ভাইরাস লাইভ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
এক্সক্লুসিভ লাইভ
বিপিএল ২০২০

করোনা ভাইরাস লাইভ

আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি আর্কাইভ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop