বাণিজ্য সময় লাইটারেজ জাহাজ সংকটে বিপর্যয়ের মুখে আমদানি খাত

০৫-০১-২০১৮, ০৯:৫৫

কমল দে

fb tw
লাইটারেজ জাহাজ সংকটের মুখে মারাত্মক বিপর্যয়ের মধ্যে পড়েছে দেশের আমদানি খাত। চট্টগ্রাম বন্দরের বহির্নোঙ্গরে অবস্থানরত মাদার ভেসেল থেকে পণ্য খালাসের জন্য দৈনিক ১শ' থেকে ১শ' ২০টি লাইটার জাহাজের প্রয়োজন থাকলেও প্রতি ৫ দিনেও ৬০টি জাহাজ পাওয়া যায়না। যে কারণে প্রায়ই জাহাজ বরাদ্দের বার্থিং মিটিং বাতিল করতে হচ্ছে। বিশেষ করে দেশের উন্নয়ন কাজে ব্যবহৃত পাথর, সিমেন্টসহ অন্যান্য সামগ্রী খালাসে ধীর গতি হওয়ায় বাজারে এসব পণ্যের সংকটেরও আশংকা দেখা দিয়েছে। বিস্তারিত জানাচ্ছেন কমল দে। 

চাল, গম, চিনি, সিমেন্ট ও পাথরের মতো বাল্ক পণ্যবাহী জাহাজগুলো বন্দরের বহির্নোঙ্গরে অবস্থান নিয়ে পণ্য খালাস করে। এরপর এসব লাইটারেজ জাহাজ খালাসকৃত পণ্য চট্টগ্রাম বন্দরের পার্শ্ববর্তী ১৬ টি ঘাট ছাড়াও দেশের নাদীবন্দরগুলোতে পৌঁছে দেয়।
মাদার ভেসেল থেকে পণ্য খালাসের জন্য প্রতিদিন যে পরিমাণ লাইটারেজ জাহাজের প্রয়োজন, নানা সমস্যার কারণে অর্ধেক পরিমাণ জাহাজও এখন পাওয়া যাচ্ছে না। 
৬০ টি লাইটারেজ জাহাজ পেলেই বাংলাদেশ ওয়াটার ট্রান্সপোর্ট সেল-এর বৈঠকের মাধ্যমে আমদানিকারকদের জাহাজ বরাদ্দ দেয়। কিন্তু পর্যাপ্ত জাহাজ না থাকায় এখন প্রায়ই বৈঠক বাতিল করতে হচ্ছে।  
বাংলাদেশ ওয়াটার ট্রান্সপোর্ট সেল-এর কো-কনভেনার শফিক আহমেদ বলেন, ‘বর্তমানে জাহাজ তিন-চারদিন পরপরই আমাদের বাতিল করতে হচ্ছে জাহাজের সংকটের কারণে।’
আমদানিকৃত পণ্য পরিবহনের জন্য আমদানিকারকেরা ৭ থেকে ২১ দিনের জন্য নির্ধারিত মূল্যে জাহাজ ভাড়া নিয়ে থাকে। কিন্তু এরপর প্রতিদিন বন্দরে অবস্থানের জন্য ১০ থেকে ১৫ হাজার মার্কিন ডলারের জরিমানা গুনতে হয় শিপিং এজেন্টদের।
ফলে ক্ষতির মুখে পড়তে হচ্ছে ব্যবসায়ীদের।
চট্টগ্রাম চেম্বার অফ কমার্স-এর সভাপতি মাহবুবুল আলম বলেন, ‘দুটো জায়গায় সমস্যা। একটা হচ্ছে, আমাদের লাইটার ভেসের অভাব, দ্বিতীয়টি হচ্ছে, আমাদের জেটি সংকট।’
বাংলাদেশ শিপিং এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের চেয়ারম্যান আহসানুল হক চৌধুরী বলেন, ‘লাইটারেজ জাহাজগুলো মাল পর্যাপ্ত জেটি অথবা গুদাম না থাকার কারণে খালাসও করতে পারে না ।’
ওয়াটার ট্রান্সপোর্ট সেল-এর তথ্য অনুযায়ী, ২১ শ লাইটারেজ জাহাজের লাইসেন্স থাকলেও বর্তমানে সচল রয়েছে ৪০০-৫০০ জাহাজ। এরমধ্যে অধিকাংশ জাহাজ পণ্য নিয়ে নদীতেই অবস্থান করছে।
চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়ার এডমিরাল খালেদ ইকবাল বলেন, ‘আমরা সুপারিশ করেছি, আমদানিকারকেরা তাদের স্ব-উদ্যোগে বিভিন্ন আধুনিক যন্ত্রপাতি দিয়ে মাল খালাস করিয়ে প্রোডাক্টিভিটি যেন বাড়ায়।’  
সিটি গ্রুপ, ম্যাগনা গ্রুপ, রয়েল সিমেন্ট, ডায়মন্ড সিমেন্টসহ মোট ১১ টি প্রতিষ্ঠানের নিজস্ব লাইটারেজ জাহাজ রয়েছে। বাকি প্রতিষ্ঠানগুলো পণ্য পরিবহনের জন্য বাংলাদেশ ওয়াটার ট্রান্সপোর্ট সেল-এর মাধ্যমে লাইটারেজ জাহাজ ভাড়া নিয়ে থাকে।     

করোনা ভাইরাস লাইভ

আরও সংবাদ

করোনা ভাইরাস লাইভ ›

লাইভ অনুষ্ঠান বুলেটিন ছবি ভিডিও টিভি আর্কাইভ
বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
সর্বশেষ সংবাদ
অনুসদ্ধান
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop