খেলার সময় বিপিএল ফাইনাল সন্ধ্যায় মাশরাফির ৪ নাকি সাকিবের টানা ২

১২-১২-২০১৭, ০৬:০২

মামুন শেখ

fb tw
<span class=বিপিএল ফাইনাল সন্ধ্যায় মাশরাফির ৪ নাকি সাকিবের টানা ২" data-src="https://www.somoynews.tv/img/upload/medium/untitled-5-95654.jpg">
বাংলাদেশ ক্রিকেটের দুই 'কিংবদন্তী'। জাতীয় দলের তিন ফরম্যাটের অধিনায়কত্বও এখন দু'জনের কাঁধেই। বিপিএলের পঞ্চম আসরে একজন নেতৃত্ব দিচ্ছেন ঢাকা ডায়নামাইটসের, অপরজন রংপুর রাইডার্সের। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ফাইনালে মুখোমুখি হবেন মাশরাফি-সাকিব। দেশসেরা এ দুই ক্রিকেটারের মধ্যে শেষ হাসিটা কে হাসেন সেটাই দেখার অপেক্ষায় লাখো-কোটি ক্রিকেটপ্রমী।
অনেক ক্ষোভ, অভিমান বুকে নিয়ে আন্তর্জাতিক টি-২০ থেকে বিদায় নিয়েছেন মাশরাফি। তাঁরই জায়গাটা নিয়েছেন সাকিব। তাই অঘোষিত একটা দ্বৈরথ থাকবে বৈকি! বিপিএলের গত চার আসরের শিরোপা কার্যত ভাগাভাগি করে নিয়েছেন মাশরাফি এবং সাকিব। যদিও অধিনায়ক হিসেবে শিরোপা জয়ের দিক থেকে ম্যাশই সর্বেসর্বা। বলতে গেলে ট্রফিটা নিজের করে নিয়েছেন মাশরাফি। প্রথম দুই আসরে তাঁর নেতৃত্বেই শিরোপা ঘরে তোলে ঢাকা গ্লাডিয়েটরস। তাঁর নেতৃত্বাধীন ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটরস ২১ ম্যাচের ১৬টিতেই জেতে। প্রথমবার বরিশাল বার্নাস ও দ্বিতীয়বার চিটাগং কিংসকে হারায় মাশরাফির ঢাকা। ২০১৫ সালে তৃতীয় আসরে মাশরাফিকে দলে ভেড়ায় কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। পুরো আসরে দাপট দেখিয়ে ফাইনালে বরিশাল বুলসকে হারিয়ে শিরোপা ঘরে তোলে তারা। গত বছর ম্যাশের সম্রাজ্যে হানা দেন সাকিব। ঢাকা ডায়নামাইটস চ্যাম্পিয়ন হয় বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের নেতৃত্বে। তাই মাশরাফির সামনে চতুর্থ আর সাকিবের সামনে টানা দ্বিতীয় শিরোপার হাতছানি।
'বিপিএলে শিরোপা জিততে চাও, মাশরাফিকে দলে ভেড়াও।' বিষয়টা যেনো এমনই। আর তাই হয়তো খরা কাটাতে ম্যাশকেই টেনেছে উত্তরবঙ্গের দলটি। হিসেবে যে বিন্দুমাত্র ভুল করেনি রংপুর টুর্নামেন্টের পরতে পরতে সেই প্রমাণ দিয়েছেন মাশরাফি। ব্যাটে বলে দারুণ নৈপুণ্যের পাশাপাশি দূরদর্শী অধিনায়কত্বে দলকে তুলেছেন ফাইনালে। ১২ ম্যাচে ৬ জয় নিয়ে কোনোভাবে শেষ চারে জায়গা পাওয়া রংপুরই এখন শিরোপার শক্ত দাবিদার! কোয়ালিফায়ার-এলিমিনেটরে দাপুটে দুই জয় জানান দিচ্ছে সেটারই। লিগ-পর্বে পারফরম্যান্স আহামরি না হলেও শেষ চারে রংপুর আবির্ভূত হয়েছে দুর্দান্ত এক দল হিসেবে। আর এর পেছনে অবশ্যই বড় অবদান মাশরাফি বিন মুর্তজার। সামনে থেকেই নেতৃত্ব দিয়েছেন দলকে। বোলিংয়ে ধারাবাহিক ভালো করেছেন, ১৩ ম্যাচে নিয়েছেন ১৪ উইকেট। দলের প্রয়োজনে দেখা গেছে তাঁর ব্যাটিং ঝলকও, ১৩ ম্যাচে করেছেন ১৩১ রান। অপরদিকে স্বভাবসুলভ অলরাউন্ড নৈপুণ্য দেখিয়েছেন সাকিবও। ব্যাট হাতে ১২ ম্যাচে ১৮৫ রান করেছেন। আর ২১ উইকেট নিয়ে আসরের সর্বোচ্চ উইকেটশিকারীও তিনিই।
কাগজে-কলমের শক্তি মাঠেও দেখিয়েছে সাকিবের ঢাকা ডায়নামাইটস। গোটা আসরে দাপট দেখানো দলটি গ্রুপ পর্বের ১২ ম্যাচে ৭ জয়ের বিপরীতে হেরেছে মাত্র ৪টিতে। কোয়ালিফারে কুমিল্লার বিপক্ষে ৯৫ রানের বিশাল জয় নিয়ে ফাইনালে পা রেখেছে তারা। তাই গেইল-ম্যাককালামদের মোটেও ভয় পাচ্ছে না রাজধানীর দলটি। অন্তত এমনটাই মত দলের কোচ খালেদ মাহমুদ সুজনের। তার মতে, তারাই সেরা দল। ভয় পাবেনই বা কেন? যে দলে কাইরোন পোলার্ড, সুনীল নারাইন, এভিন লুইস, শহিদ আফ্রিদি, সাকিব আল হাসানের মতো টি-টোয়েন্টি স্পেশালিস্টরা আছেন তাদের আবার ভয় কিসের!
তবে সুজন মুখে মুখে যাই বলুক। ভাবতে তাদের হবেই! বিপিএলে চলতি আসরের দু'টি সেঞ্চুরিই এসেছে রংপুরের ব্যাটসম্যানদের ব্যাটেই। তাও সবশেষ দুই ম্যাচে। গেইল এবং চার্লসদের তাণ্ডব কিছুটা হলেও সাকিবদের কপালে ভাজ ফেলবে এটা বলার অপেক্ষা রাখে না। তার সঙ্গে যোগ হয়েছেন ব্রেন্ডন ম্যাককালাম। গোটা টুর্নামেন্টে নিজের ছায়া হয়ে থাকা এ কিউই খোলস ছেড়ে বের হয়েছেন শেষ সময়ে। কুমিল্লার বিপক্ষে ৪৬ বলে ৭৮ রানের ইনিংস ঘোষণা দিচ্ছে নিজেকে ফিরে পাবার।
সবদিক বিবেচনায় শক্তির খুব বেশি তারতম্য নেই দু'দলের। তাই ফাইনালের উত্তাপটাও একটু বেশি। এখন দেখা যাক ট্রফিটা কে উঁচিয়ে ধরেন, সাকিব না মাশরাফি।
/এসএম

করোনা ভাইরাস লাইভ

আরও সংবাদ

stay home stay safe
বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
এক্সক্লুসিভ লাইভ
বিপিএল ২০২০

করোনা ভাইরাস লাইভ

আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি আর্কাইভ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop