বাংলার সময় নারায়নগঞ্জের রাস্তায় ৩ শতাধিক পুলিশ

১৪-০৪-২০২১, ১৫:০৬

সময় সংবাদ

fb tw
নারায়নগঞ্জের রাস্তায় ৩ শতাধিক পুলিশ
09
করোনার দ্বিতীয় ধাপের সংক্রমণ রোধে চলতি বছর সরকার ঘোষিত দ্বিতীয় দফার লকডাউন নারায়ণগঞ্জে কঠোরভাবে পালিত হচ্ছে। সকাল থেকেই সব ধরনের গণপরিবহন, শপিংমল ও পাড়া-মহল্লার দোকানপাট বন্ধ রয়েছে। শুধুমাত্র পণ্যবাহী কিছু পরিবহন, গুটিকয়েক ব্যাটারিচালিত রিকশা ও অটোরিকশা চলাচল করছে।
জেলা শহর এবং উপজেলাগুলোতের রাস্তায় গণমানুষের চলাচল একেবারেই কম। বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া কেউ বাইরে বের হচ্ছেন না। যারা বের হচ্ছেন তাদেরকে বিভিন্ন চেকপোস্টে আইন পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি হতে হচ্ছে। ফতুল্লার বিসিক শিল্পনগরী এবং সিদ্ধিরগঞ্জে আদমজী ইপিজেডে ৮০ শতাংশ গার্মেন্টস কারখানা খোলা থাকলেও শ্রমিকদের উপস্থিতি খুবই কম। কিছু কিছু গার্মেন্টস কারখানা বাংলা নববর্ষের ছুটি দিয়ে বন্ধ রাখা হয়েছে। বুধবার সকাল থেকে দেখা গেছে নারায়ণগঞ্জের এই চিত্র।
নারায়ণগঞ্জের লকডাউন পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করতে জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জায়েদুল আলম দুপুরে নগরীর বিভিন্ন চেকপোস্ট পরিদর্শন করেন। পরে চাষাঢ়ায় প্রেস ব্রিফিং করে গণমাধ্যমকে তিনি জানান, সড়ক ও মহাসড়কগুলো নিয়ন্ত্রণ করতে গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টগুলোতে ৩০টি চেকপোস্ট বসানোসহ সেগুলো ব্যবস্থাপনায় তিন শতাধিক পুলিশ সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে।
নারায়ণগঞ্জবাসীকে সরকারের বিধিনিষেধ মেনে চলার আহবান জানিয়ে পুলিশ সুপার বলেন, স্বাস্থ্যবিধি ও লকডাউন মেনে না চললে আইন ভঙ্গকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হবে। কেউ জরুরি প্রয়োজনে ঘর থেকে বাইরে বের হলে লকডাউন আইনসিদ্ধ কিনা তা যাচাই বাছাই করা হবে। এছাড়া রোগীদের ব্যাপারে যাচাই বাছাই সাপেক্ষে বিশেষ ছাড় রয়েছে। নারায়ণগঞ্জ যাতে গেল বছরের মতো হটস্পটে পরিণত না হয় সেজন্য সর্বস্তরের মানুষকে সচেতন হওয়ার পাশাপাশি আইন শৃঙ্খলা মেনে চলার আহবান জানান তিনি।
হেফাজত প্রসঙ্গে জেলা পুলিশ সুপার জানান, হরতাল কর্মসূচিসহ মামুনুল হকের নারী কেলেঙ্কারীর ঘটনাকে কেন্দ্র করে নারায়ণগঞ্জে নাশকতা ও সহিংসতা সৃষ্টির অভিযোগে এ পর্যন্ত হেফাজতের একশোর কাছাকাছি আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ভিডিও ফুটেজ, স্থিরচিত্র ও ফেসবুক পোস্ট পর্যবেক্ষণ করে নাশকতার সাথে জড়িতদের শনাক্ত করা হচ্ছে। তাদেরকে আইনের আওতায় আনতে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।
এদিকে নারায়ণগঞ্জে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে এবং নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৮৭ জন। জেলায় এ পর্যন্ত করোনায় মৃত্যু হয়েছে ১৯২ জনের এবং মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১১ হাজার ৮২২ জন। 
বুধবার সকালে জেলার করোনা পরিস্থিতির এই তথ্য নিশ্চিত করে নারায়ণগঞ্জের সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ ইমতিয়াজ সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি ও লকডাউন মেনে চলার পরামর্শ দেন।

করোনা ভাইরাস লাইভ

আরও সংবাদ

করোনা ভাইরাস লাইভ ›

লাইভ অনুষ্ঠান বুলেটিন ছবি ভিডিও টিভি আর্কাইভ
বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
সর্বশেষ সংবাদ
অনুসদ্ধান
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop