বাংলার সময় সহস্র কণ্ঠে ধ্বনিত হলো বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ

০৭-০৩-২০২১, ১৭:৪০

ওয়েব ডেস্ক

fb tw
সহস্র কণ্ঠে ধ্বনিত হলো বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ
05
ঝিনাইদহে সহস্র কণ্ঠে ধ্বনিত হলো বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ মার্চের কালজয়ী সেই ভাষণ। সকালে শহরের বীরশ্রেষ্ঠ হামিদুর রহমান স্টেডিয়ামে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে জেলা প্রশাসন। বঙ্গবন্ধুর সেদিনের সেই ভাষণের মর্মার্থ ও গুরুত্ব বর্তমান ও আগামী প্রজন্মকে জানান দিতেই এ আয়োজন বলে জানান আয়োজকরা।
রোববার (৭ মার্চ) সকাল ৮ টা। কোমলমতি শিক্ষার্থীরা বঙ্গবন্ধুর বেশে সহস্র মুজিব রুপে হাজির হয় ঝিনাইদহ শহরের বীরশ্রেষ্ঠ হামিদুর রহমান স্টেডিয়ামে। সব আয়োজন শেষে কণ্ঠে কণ্ঠ মিলিয়ে ক্ষুদে শিশুরা পাঠ করেন ঐতিহাসিক কালজয়ী বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ।
নতুন প্রজন্মের কণ্ঠে উচ্চারিত ‘এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম, এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম’ শুনতে ভিড় করেন শহরবাসীও। এ আয়োজনে অংশ নিয়ে বঙ্গবন্ধু এবং ইতিহাস সম্পর্কে জানতে পেরে উচ্ছ্বসিত শিক্ষার্থীরা। উপস্থিত ছিলেন প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠনের নেতাকর্মীরা।
দিবসটি উপলক্ষে খুলনায় অনুষ্ঠিত হয়েছে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের কণ্ঠে বঙ্গবন্ধুর সেই চির চেনা মার্চের ভাষণটি। খুলনার নয়টি উপজেলার এবং মহানগরীর দেড় হাজার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ক্ষুদে শিক্ষার্থীরা এ কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করেন।
খুলনা মহানগর ও জেলার ১৫০০ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের দেড় লাখ শিক্ষার্থীর কণ্ঠে একযোগে প্রচারিত হয় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণ। দুপুরে খুলনার সরকারি মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজ প্রাঙ্গণে এ কর্মসূচির আয়োজন করা হয়। মূল অনুষ্ঠানস্থলে অংশ নেয় ১৫১ জন ক্ষুদে শিক্ষার্থী। করোনা পরিস্থিতির কারণে ভার্চুয়াল অনলাইনের মাধ্যমে এ কর্মসূচিতে অংশ নেয় অন্যান্য শিক্ষার্থীরা। তাদের উদ্দেশ্যে দেয়া ১৮ মিনিটের ভাষণ পরিবেশন করে। ক্ষুদে শিক্ষার্থীরা এ ধরনের আয়োজনে অংশ নিতে পেরে আনন্দ প্রকাশ করেন। আগামীতে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের বাংলাদেশ তথা সোনার বাংলা গড়তে একযোগে কাজ করার প্রত্যয় ব্যক্ত করে এ অনুষ্ঠানে অংশ নেন ক্ষুদে শিক্ষার্থীরা।
এদিকে বঙ্গবন্ধুর ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনার আদর্শ আগামী প্রজন্মের কাছে পৌঁছে দেয়ার জন্য উদ্যোগ নেয়া হয়েছে বলে জানান আয়োজক খুলনার জেলা প্রশাসক  মো. হেলাল হোসেন।
খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক বলেন, নতুন প্রজন্মের কাছে ৭ মার্চের গুরুত্ব ছড়িয়ে দেওয়ার মূল লক্ষ্য এটা।
অন্যদিকে অভিভাবকরা এ ধরনের আয়োজনে নিজেদের সন্তানদের সম্পৃক্ত করতে পেরে গর্বিত মনে করেন।
খুলনা জেলা প্রশাসন চাইল্ড ইন্টিগ্রিটি ও খুদে বঙ্গবন্ধু ফোরাম যৌথভাবে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।
এদিকে, চাঁদপুরে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ প্রচার, কেক কাটা এবং আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন নৌ পুলিশ চাঁদপুর অঞ্চলের পুলিশ সুপার মো. কামরুজ্জামান, মোহনপুর ফাঁড়িতে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বেলায়েত হোসেন এবং নীলকমল ফাঁড়িতে জ্যেষ্ঠ সহকারী পুলিশ সুপার হেলাল উদ্দিনসহ অনেকে।
বাগেরহাটে বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ভাষণ ৭ মার্চ ও বাংলাদেশ এলডিসি থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণে জাতিসংঘের চূড়ান্ত সুপারিশ প্রাপ্তিতে আনন্দ উদযাপন করেছে বাগেরহাট জেলা পুলিশ।
এছাড়াও দেশের অন্যান্য জায়গাতেও পালন করা হয়েছে বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ভাষণ ৭ মার্চ উপলক্ষে বিভিন্ন অনুষ্ঠান।

করোনা ভাইরাস লাইভ

আরও সংবাদ

করোনা ভাইরাস লাইভ ›

লাইভ অনুষ্ঠান বুলেটিন ছবি ভিডিও টিভি আর্কাইভ
বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
সর্বশেষ সংবাদ
অনুসদ্ধান
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop