বাংলার সময় সীমান্তের রিট্রেড শিরোমনিতে দুই বাংলার মিলনমেলা

২৭-০১-২০২১, ০২:১৪

আজিজুল হক

fb tw
সীমান্তের রিট্রেড শিরোমনিতে দুই বাংলার মিলনমেলা
10
নেই কাটা তারের বেড়া, নেই কড়া চোখের নজরদারি। এক ছাদের নিচে উড়ছে দুই দেশের পতাকা। পরে বিগল আর জাতীয় সংগীতের তালে তালে তা নামছে। সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিজিবি-বিএসএফের বুটের আওয়াজে প্রকম্পিত এলাকা। তাদের সেই যৌথ প্যারেডে পরিণত হয়েছে মিলনের সেতু বন্ধন। প্রাণ খুলে হাসছে, নাচছে আবার কেউ গাইছে। স্মৃতি ধরে রাখতে সবাই ব্যস্ত সেলফি আর ভিডিওতে। যেন ভুলে গেছে নারী, পুরুষ, শিশু, আর বৃদ্ধের ভেদাভেদ। 
করোনা প্রকোপে বছর ধরে ঘরবন্দী থাকা সীমান্তের দুই বাংলার মানুষ দির্ঘ ১০ মাস পর ২৬ জানুয়ারী বিকালে বেনাপোল-পেট্রাপোল সীমান্তের শুণ্য রেখায় পূনরায় শুরু হওয়া বিজিবি/বিএসএফের রিট্রেড শিরোমনিতে বিনোদনের সুযোগ পেয়ে এমন আনন্দে মেতে উঠে। 
জানা যায়, সীমান্তে বসবাসরত মানুষ ও সীমান্তরক্ষীদের মধ্যে বন্ধুত্ব ও পারস্পারিক সোহার্দ্য সম্পর্ক বৃদ্ধি করতে ২০১৩ সালের ৬ অক্টোম্বর দুই দেশের রাষ্টীয় সিদ্ধান্তে রিট্রেড শিরোমনি চালু হয়েছিল। সে থেকে প্রতিদিন চলে আসছিল এ অনুষ্ঠানটি। বিকাল ৫টায় শুরু হয়ে মোট ৩০ মিনিটের অনুষ্ঠানের মধ্যে ১৮ মিনিট সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও বাকি সময় কুচকাওয়াজের পাশাপাশি দু’দেশের যৌথ সাংস্কৃতিক মঞ্চে বেজে উঠে রবীন্দ্রসঙ্গীত ও নজরুলগীতি এবং দেশাত্ববোধক গান। বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া করোনা সংক্রমণ এড়াতে বিজিবি ও বিএসএফ যৌথ সিদ্ধান্তে গত বছরের ১৮ মার্চ থেকে এ অনুষ্ঠান বন্ধ রাখা হয়েছিল। 
রিট্রেড শিরোমনি অনুষ্ঠান উপভোগ করতে আসা দুই দেশের সীমান্তবাসী জানান, করোনায় দীর্ঘদিন ঘরবন্দী ছিলাম। বিনোদনের কোন সুযোগ ছিল না। এমন ব্যতিক্রম একটি অনুষ্ঠানে আসতে পেরে বেশ ভাল লাগছে। এমন অনুষ্ঠান বিনোদনের পাশাপাশি দুই দেশের মানুষের মধ্যে বন্ধুত্বের ও সোহার্দ্যের সম্পর্ক বাড়াতে বড় ভূমিকা রাখবে। 
ভারতের ১৭৯ ব্যাটালিয়ন বিএসএফের অধিনায়ক(সিও) অরুণ কুমার জানান, বেনাপোল-পেট্রাপোল গুরুত্বপূর্ণ সীমান্ত। প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ এ সীমান্তে যাতায়াত করে। রয়েছে বড় বাণিজ্যিক সম্পর্ক। ট্যুরিষ্টসহ সকলে এ অনুষ্ঠান উপভোগ করার সুযোগ রয়েছে।
৪৯ ব্যাটালিয়ন বিজিবির অধিনায়ক (সিও) লে. কর্ণেল সেলিম রেজা জানান, দুই দেশের মানুষের মধ্যে সোহার্দ্য,সম্প্রতির বন্ধন বাড়াতে বড় ভূমিকা রেখে আসছে এ অনুষ্ঠানটি। প্রায় এক বছর বন্ধ থাকার পর স্বাস্থ্যবিধি মেনে আবার চালু করা হলো অনুষ্ঠানটি। 
জানা যায়, স্বাস্থ্যবিধি মেনে আপাতত সপ্তাহে ১ দিন সোমবার বিকাল ৫টা থেকে সাড়ে ৫টা পর্যন্ত চলবে রিট্রেড শিরোমনি অনুষ্ঠান। পরবর্তীতে করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে পূর্বের ন্যায় চলবে প্রতিদিন। 

করোনা ভাইরাস লাইভ

আরও সংবাদ

করোনা ভাইরাস লাইভ ›

লাইভ অনুষ্ঠান বুলেটিন ছবি ভিডিও টিভি আর্কাইভ
বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
সর্বশেষ সংবাদ
অনুসদ্ধান
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop