খেলার সময় সাকিবকে সরালেন হেড কোচ!

১৯-০১-২০২১, ০১:২৫

মাকসুম আলম খান

fb tw
03
ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে সাকিব অবিশ্বাস্য। কার্ডিফ-টাউন্টন-লর্ডসে তার ব্যাটে ছিল রানের স্ফুলিঙ্গ। ওয়ানডাউনে নেমে দুই সেঞ্চুরি ও পাঁচ ফিফটিতে করেন ৬০৬ রান। এই তিন নম্বর পজিশনে বরাবরই উজ্জ্বল মিস্টার সেভেন্টি ফাইভ। ২৩ ওয়ানডেতে রান ১১৭৭। আছে ২ সেঞ্চুরি, ১১ ফিফটি। গড় প্রায় ৫৯। কিন্তু, বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার প্রিয় ব্যাটিং পজিশনটা কেড়েই নিলেন হেড কোচ। 
ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজে টাইগারদের ব্যাটিং অর্ডারে আসছে ব্যাপক রদবদল। ব্যাট হাতে অবিশ্বাস্য একটা বিশ্বকাপ কাটালেও, তিন নম্বর পজিশনে থাকছেন না সাকিব। ভিশন ২০২৩ এর মারপ্যাঁচে ব্যাটসম্যান সাকিব। তার জায়গায় স্পটলাইটে নাজমুল হোসেন শান্ত। আর সাকিব, মুশফিক ও মাহমুদউল্লাহ খেলবেন যথাক্রমে চার, পাঁচ ও ছয় নম্বরে। নিয়মিত ওপেনার সৌম্যও খেলবেন মিডল অর্ডারে। ওয়ানডে দলে নিয়মিত তিন পেসার খেলানোর পরিকল্পনাও রয়েছে টিম ম্যানেজমেন্টের। এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে এসব জানিয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের হেড কোচ রাসেল ডমিঙ্গো।
ডমিঙ্গো বলেন, শান্ত খুব ভালো ফর্মে আছে। তরুণ ব্যাটসম্যানদের প্রস্তুত করতে হবে। বিশেষ করে উপমহাদেশে ব্যাটিং অর্ডারের প্রথম তিন পজিশনে খেলেই একজন ব্যাটসম্যান নিজেকে ভালোভাবে প্রস্তুত করতে পারে। সাকিবকে পাওয়াটা সৌভাগ্যের। দুর্দান্ত একটা বিশ্বকাপ কাটিয়েছে সে। তবে, আপাতত আমি অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যানদের অর্থাৎ সাকিব, মুশফিক আর মাহমুদউল্লাহকে যথাক্রমে ৪, ৫ ও ৬ নম্বরের জন্য চিন্তা করছি।
ওপেনিংয়ে তামিমের সঙ্গী হিসেবে জায়গা পাকা লিটনের। আরেক ওপেনার সৌম্যকে তাই দেখা যাবে নতুন ভূমিকায়। খেলতে হবে লোয়ার মিডল অর্ডারে। এর আগে ৫৪ ওয়ানডেতে ৬ আর ৭ নম্বরে মাত্র ৩ বারই খেলেছেন সৌম্য। করেছেন মোটে ৫৮ রান। তারপরও কোচের বক্তব্যের অন্তর্নিহিত বার্তাটা পরিষ্কার। আফিফ হোসেন-শেখ মেহেদিরা যখন দলে থিতু হওয়ার সুযোগ খুঁজছেন, সৌম্যকে খাপ খাইয়ে নিতে হবে দ্রুতই।
তাই সৌম্যকে নিয়ে ডমিঙ্গোর ভাবনাও বেশি। বলেন, সৌম্য সবসময়ই টপ অর্ডারে খেলেছে। কিন্তু, এখন তাকে মিডল অর্ডারে ফিনিশারের ভূমিকায় দেখতে চাই। ৬ কিংবা ৭ নম্বর পজিশনে খেলা কঠিন। কখনও কখনও ওভারে ১০ করে রান তুলতে হবে। কখনও ৫০ রানে ৫ উইকেট হারানোর পর ক্রিজে আসতে হবে। ওকে সময় দিতে হবে।
স্কোয়াডে এখন থেকে নিয়মিত তিন পেসার খেলানোর পরিকল্পনার কথাও জানান টাইগার হেড কোচ। বলেন, আমরা সবসময়ই ওয়ানডে দলে অন্তত তিন পেসার খেলাতে চাই। শরিফুল, হাসান মাহমুদদের মতো ইয়াংস্টাররা সম্ভাবনাময়। রুবেল-মোস্তাফিজ ভালো করছে। তাসকিনও উন্নতি করেছে। ওদের পর্যাপ্ত সুযোগ দেওয়া দরকার। সবসময় স্পিনার নির্ভর দল হয়ে খেলা যাবে না। আমরা নিউজিল্যান্ডে যাব। সেখানে একজন স্পিনার খেলাতে পারব। ওই কন্ডিশনে ভালো করতে আমাদের পেসারদের প্রস্তুত রাখতে হবে।
এই রদবদলের সুফল নিয়ে বেশ আত্মবিশ্বাসী ডমিঙ্গো। স্কোরশিটে উঠছে কতো নম্বর, দেখা যাবে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে হোম সিরিজেই।

করোনা ভাইরাস লাইভ

আরও সংবাদ

করোনা ভাইরাস লাইভ ›

লাইভ অনুষ্ঠান বুলেটিন ছবি ভিডিও টিভি আর্কাইভ
বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
সর্বশেষ সংবাদ
অনুসদ্ধান
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop