বাংলার সময় নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দেশের বিভিন্ন জায়গায় সংঘর্ষ

১৭-০১-২০২১, ১১:১১

বাংলার সময় ডেস্ক

fb tw
10
দ্বিতীয় ধাপে ৬০টি পৌরসভা নির্বাচনে বেশির ভাগ জায়গায় সুষ্ঠু ভোটগ্রহণ হলেও কয়েকটি স্থানে দেখা দেয় উত্তেজনা। গাইবান্ধায় নির্বাচনের ফলাফল নিয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে পরাজিত প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষ হয়। সিরাজগঞ্জে প্রতিপক্ষের হামলায় বিএনপি সমর্থিত নির্বাচিত কাউন্সিলর নিহত হয়েছেন। এ ছাড়া ফেনী, পাবনা, মোংলাসহ বেশকিছু এলাকায় বিক্ষিপ্ত সংঘর্ষ হয়।
শনিবার (১৬ জানুয়ারি) দিনভর শান্তিপূর্ণ নির্বাচন হলেও সন্ধ্যার পর উত্তপ্ত হয়ে উঠে গাইবান্ধার পৌরসভা নির্বাচনী এলাকা।
পুলিশ জানায়, ফলাফল ঘোষণা করে নির্বাচনীসামগ্রী নিয়ে ফেরত যাওয়ার সময়, জয় না পাওয়া স্বতন্ত্র প্রার্থী আনোয়ারুল সরোয়ার শাহিদের সমর্থকরা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ওপর হামলা চালায়। এ সময় র‌্যাব ও পুলিশের ৪টি গাড়ি ভাঙচুর করা হয়। পুড়িয়ে দেওয়া হয় আরো একটি গাড়ি। আহত হন দুই র‌্যাব সদস্য। এরপর আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে দফায় দফায় চলে সংঘর্ষ। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে কয়েক রাউন্ড গুলি ছোড়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।
শনিবার সন্ধ্যায় সিরাজগঞ্জে ভোট গণনার সময় শহীদগঞ্জ এলাকার একটি কেন্দ্রে ভোট গণনার খোঁজ নিতে যান ৬নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী তরিকুল ইসলাম। এ সময় ফলাফল নিয়ে উট প্রতীকের প্রার্থী শাহাদৎ হোসেন বুদ্দিনের সমর্থকদের সঙ্গে কথা-কাটাকটি হয় তরিকুলের। একপর্যায়ে তাকে ছুরিকাঘাত করে প্রতিপক্ষের লোকজন। নির্বাচিত এ কাউন্সিলরকে উদ্ধার করে জেলা সদর হাসপাতালে নেওয়ার পর তাকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক। এ ঘটনার প্রতিবাদে নিহতের বিক্ষুব্ধ সমর্থকরা বাহিরগোলা এলাকায় ২টি ট্রাক, একটি মাইক্রো ও ৫টি মোটরসাইকেলে অগ্নিসংযোগ করে।
শনিবার সকাল ৮টা থেকে শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহণ চললেও ১০টার দিকে গনিপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে হঠাৎ পরপর দুটি ককটেল বিস্ফোরণ হয়। এ সময় ওই কেন্দ্রে দায়িত্বে থাকা আনসার সদস্য আরিফুল আহত হন। এ ঘটনার পরপরই দুই কাউন্সিলর প্রার্থীর লোকজনের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া হয়। এতে দুজন আহত হন।
ঝিনাইদহের শৈলকূপা পৌর নির্বাচনে খুলনা বাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের পাশে মাঠের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া হয়, নৌকার প্রার্থী কাজী আশরাফুল আজম ও স্বতন্ত্র মেয়রপ্রার্থী তৈয়বুর রহমান খানের লোকজন। একপর্যায়ে লাঠিসোঁটা নিয়ে তারা সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এদিকে, ঝাউদিয়া ভোটকেন্দ্র পরিদর্শনে গেলে স্বতন্ত্র মেয়রপ্রার্থী তৈয়বুর রহমান খানের গাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগ ওঠে।
নেত্রকোনার মোহনগঞ্জ, মৌলভীবাজারের কুলাউড়া, বাগেরগাটের মোংলা পোর্ট ও কিশোরগঞ্জ পৌর নির্বাচনে দু-একটি কেন্দ্রে মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীর সমর্থক দুই গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া ও ধস্তাধস্তি হয়।

করোনা ভাইরাস লাইভ

আরও সংবাদ

করোনা ভাইরাস লাইভ ›

লাইভ অনুষ্ঠান বুলেটিন ছবি ভিডিও টিভি আর্কাইভ
বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
সর্বশেষ সংবাদ
অনুসদ্ধান
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop