বাংলার সময় যোগাযোগে নতুন দিগন্ত প্রথম সুপার এক্সপ্রেসওয়ে

১৪-০১-২০২১, ১৯:৫২

নাসির উদ্দিন উজ্জ্বল

fb tw
যোগাযোগে নতুন দিগন্ত প্রথম সুপার এক্সপ্রেসওয়ে
ঢাকা-মাওয়া-ভাঙ্গা দেশের প্রথম সুপার এক্সপ্রেসওয়ে। যোগাযোগ ব্যবস্থায় নতুন এক দিগন্ত উন্মোচিত করেছে। দুটি সার্ভিস লেনের মাধ্যমে দেশের দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চলের সঙ্গে রাজধানীকে যুক্ত করেছে। ভ্রমণের সময় সাশ্রয় করার পাশাপাশি যানবাহন দ্রুত, নির্বিঘ্নে ও নিরবিচ্ছিন্নভাবে চলাচল করাসহ বেড়েছে নানা সুবিধা। 
নান্দনিক নির্মাণশৈলী আর এক্সপ্রেসওয়ের দুইটি সার্ভিস লেনের মাঝে দৃষ্টিনন্দন নানা প্রজাতির ফুলের গাছ সড়কের সৌন্দর্য আরো বাড়িয়ে দিয়েছে। নতুন এই সড়ক নিয়ে পর্যটকের রয়েছে কৌতূহল। 
এক্সপ্রেসওয়েতে পাঁচটি ফ্লাইওভার, ১৯টি আন্ডারপাস এবং প্রায় ১০০টি সেতু এবং কালভার্ট রয়েছে। ঢাকা-মাওয়া-ভাঙ্গা এক্সপ্রেসওয়ের ৫৫ কিলোমিটারের মধ্যে ঢাকা থেকে মুন্সীগঞ্জের মাওয়া পর্যন্ত ৩৫ কিলোমিটার দীর্ঘ এই সড়ক জেলার সিরাজদিখান, শ্রীনগর ও লৌহজং এই তিনটি উপজেলার মধ্য দিয়ে গেছে।
এই এক্সপ্রেসওয়ে নির্মাণের ফলে রাজধানী ঢাকার সাথে যোগাযোগ ব্যবস্থা সহজ হয়েছে। পাশাপাশি সড়কের আশেপাশে বিভিন্ন শিল্প কারখানা গড়ে উঠেছে। অন্যদিকে এখানকার জমির দামও কয়েক গুণ বেড়ে গেছে।
সিরাজদিখান উপজেলা নিবার্হী অফিসার সৈয়দ ফয়েজুর রহমান বলেন, কোথাও হয়ত ভরাট জমি সেখানে তিন চার লাখ টাকা। কোথাও হয়ত নিচু কৃষি জমি এক থেকে দেড় লাখ টাকার মত।
বরিশাল বিভাগের ছয় জেলা, খুলনা বিভাগের ১০টি জেলা এবং ঢাকা বিভাগের ছয় জেলার মানুষ সরাসরি এই আন্তর্জাতিক মানের এক্সপ্রেসওয়ে থেকে নানাভাবে উপকৃত হচ্ছেন।
এলাকাবাসীরা বলেন, যে ভালো হয়েছে তা কোনদিন কল্পনা করা যায় না। যাতায়াতে কম সময় লাগে, এলাকার সৌন্দর্য বৃদ্ধি করেছে।
এই এক্সপ্রেসওয়েতে পাঁচটি ফ্লাইওভার, চারটি রেলওয়ে ওভারব্রিজ ও চারটি বড় আকারের ব্রিজ রয়েছে। এখানে উল্টো পথে চলাচলের সুযোগ নেই, ইচ্ছেমাফিক ফ্লাইওভারে ওঠা এবং নামার পথ রাখা হয়নি। রয়েছে নির্দিষ্ট পয়েন্ট।
এক্সপ্রেসওয়ের দুটি অংশ ৬ দশমিক এক পাঁচ কিলোমিটার দীর্ঘ পদ্মা সেতু দিয়ে সংযুক্ত হবে। দেশের দীর্ঘতম এই পদ্মা সেতুতে ১০ ডিসেম্বর সবশেষ ৪১তম স্প্যান বসানোর পর ইতোমধ্যে দৃশ্যমান হয়েছে পুরো সেতু।
সড়ক ও জনপথ বিভাগ এবং বাংলাদেশ সেনাবাহিনী যৌথভাবে ২০১৬ সালে চারটি জেলা ঢাকা, মুন্সিগঞ্জ, মাদারীপুর এবং ফরিদপুরে এক্সপ্রেসওয়ে প্রকল্পের বাস্তবায়ন শুরু করে এবং এটি নির্ধারিত সময়সীমার তিন মাস আগে নির্মাণ কাজ সম্পন্ন করে খুলে দেয়ার পর থেকেই ব্যাপক জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। 
এক চালক বলেন, 'আগে রাস্তা অনেক খারাপ ছিল এখন একটু ভালো হয়েছে, গাড়ি চালিয়েও বেশ আরাম পাওয়া যায়।'
এলাকাবাসী বলেন, 'যেরকম প্লেনে আসি আমার কাছে সেরকম লাগে। এটা দেখার জন্য দূর থেকে অনেক লোক আসে।'
স্থানীয় ও ধীর গতি সম্পন্ন যানবাহনের জন্য এক্সপ্রেসওয়ের দু’পাশে দুটি পরিসেবা লেন রাখা হয়েছে যাতে দ্রুতগতির যানবাহনগুলো নিরবচ্ছিন্নভাবে রাস্তায় চলাচল করতে পারে। এক্সপ্রেসওয়ের পাঁচটি ফ্লাইওভারের মধ্যে একটি ২.৩ কিলোমিটার কদমতলী-বাবুবাজার লিংক রোড ফ্লাইওভার রয়েছে। অন্য চারটি ফ্লাইওভার হলো আবদুল্লাহপুর, শ্রীনগর, পুলিয়াবাজার এবং মালিগ্রামে। এক্সপ্রেসওয়ের জুরাইন, কুচিয়ামোড়া, শ্রীনগর ও আতাদিতে চারটি রেলওয়ে ওভার ব্রিজ রয়েছে এবং চারটি বড় সেতু রয়েছে যার মধ্যে ৩৬৩ মিটার ধলেশ্বরী-১, ৫৯১ মিটার ধলেশ্বরী-২, ৪৬৬ মিটার আড়িয়াল খান এবং ১৩৬ মিটার কুমার সেতু। এক্সপ্রেসওয়েতে যানজট না থাকায় বাস ও ট্রাক দ্রুতগতিতে চলাচল করতে পারে।
অঞ্চলটি একটি পর্যটন স্পট হয়ে উঠছে। সুপার এক্সপ্রেসওয়ের মান এবং সৌন্দর্য দেখে গর্বিত এলাকাবাসী।
প্রায় ১১ হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত হয়েছে সুপার এক্সপ্রেসওয়েটি। পদ্মা সেতু চালু হলে মাত্র এক ঘন্টায় রাজধানী থেকে মাদারীপুরের পাচ্চর যাওয়া সম্ভব হবে। গত ১২ মার্চ চালু হওয়া এই সড়ক দিয়ে রাজধানী ঢাকা থেকে মাওয়া পৌঁছাতে সময় লাগছে মাত্র ৩০ মিনিট।

করোনা ভাইরাস লাইভ

আরও সংবাদ

করোনা ভাইরাস লাইভ ›

লাইভ অনুষ্ঠান বুলেটিন ছবি ভিডিও টিভি আর্কাইভ
বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
সর্বশেষ সংবাদ
অনুসদ্ধান
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop