খেলার সময় নিজেদের প্রমাণে প্রস্তুতি নিচ্ছে হকি দল

১৩-০১-২০২১, ০১:৫২

ফারজানা মুমু

fb tw
নিজেদের প্রমাণে প্রস্তুতি নিচ্ছে হকি দল
চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি সামনে রেখে মাওলানা ভাসানী হকি স্টেডিয়ামে শুরু হয়েছে জাতীয় হকি দলের ক্যাম্প। করোনা পরীক্ষায় পজেটিভ হওয়ায় একমাত্র খেলোয়াড় দেবাশিষ কুমার ছাড়া বাকি সবাই যোগ দিয়েছেন ক্যাম্পে। 
এত বড় আসরে এর আগে খেলার অভিজ্ঞতা নেই। তাই দলের প্রস্তুতির অংশ হিসেবে বিদেশের মাটিতে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলার কথা ভাবছেন কোচ। এদিকে, দীর্ঘদিন পর মাঠে ফিরতে পেরে খুশি খেলোয়াড়রা।
করোনার কারণে লম্বা সময় মাঠে ছিল না হকি। ছিল না আন্তর্জাতিক খেলাও। ঘরোয়া কিছু টুর্নামেন্ট হলেও এবার কঠিন পরীক্ষা অপেক্ষা করছে জিমি, মিমোদের সামনে। আর তা হলো চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি।
স্বাগতিক হওয়ায় এবারই প্রথম এত বড় আসরে অংশ নেয়ার সুযোগ পাচ্ছে বাংলাদেশ। অংশ নিচ্ছে ভারত, পাকিস্তান, জাপান, মালয়েশিয়া ও দক্ষিণ কোরিয়ার মত বড় দল।
দীর্ঘদিন পর আন্তর্জাতিক এত বড় আসরে খেলবে লাল সবুজের প্রতিনিধিরা। তার ওপর কঠিন সব প্রতিপক্ষ। তাই আসর শুরুর আগে নিজেদের প্রস্তুত করতে বাড়তি সতর্ক কোচ।
জাতীয় হকি দলের কোচ মাহবুব হারুন বলেন, ‘আমরা কিন্তু আয়োজক হিসেবে এখানে অংশ নেয়ার সুযোগ পাচ্ছি। র্যাঙ্কিং এর হিসেবে নয়। পাঁচটা টিমের সঙ্গে আমাদের খেলার অভিজ্ঞতা আছে। আমি চারটা প্র্যাকটিস ম্যাচ খেলবো। সেটা দেশে হোক কিংবা দেশের বাইরে হোক। সেটা ফেব্রুয়ারির ১৫ তারিখের পরে।’
করোনা পরীক্ষায় পজেটিভ হয়েছেন প্রথমবারের মত জাতীয় হকি দলে ডাক পাওয়া খেলোয়াড় দেবাশিষ কুমার। বাকি ৩০জন খেলোয়াড় নিয়ে শুরু হয়েছে ক্যাম্প। দীর্ঘদিন পর মাঠে ফিরতে পেরে উচ্ছসিত সবাই। প্রত্যাশা নিজেদের ঘাটতিগুলো দ্রুত কাটিয়ে আসরে ভালো কিছু করার।
ক্যাম্পে অংশ নেয়া খেলোয়াড়রা জানান, তাদের জন্য লোকাল টুর্নামেন্ট ছিলো বেশ কিছু। কিন্তু একটা আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টের যে প্রভাব, নিজেদের পারফরম্যান্সটা কেমন হচ্ছে আন্তর্জাতিক লেভেলে এটা করার সুযোগ তাদের ছিল না। গেলো বছর করোনার কারণে অনেক টুর্নামেন্ট খেলতে পারিননি তারা।
আন্তর্জাতিক পর্যায়ের এই টুর্নামেন্টে শক্তিশালী দলগুলোর ব্যাপারে নিজেদের খেলার কৌশল নিয়েও ভাবছেন তারা। তাদের মতে, পেনাল্টি কর্ণারে সব টিম শক্তিশালী। তাই তারা পেনাল্টি কর্ণারের ডিফেন্স, বল কনট্রোলিং নিয়ে কাজ করতে চাচ্ছেন। এতে তারা ভাল কিছু করবেনও বলেও আশাবাদী।
তরুণ অভিজ্ঞদের মিশেলেই গড়া হয়েছে এবারের দলটি। যা দলের পারফরম্যান্সে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা। আর তাই জাতীয় দলের পাশাপাশি বয়সভিত্তিক দলগুলোর ক্যাম্পও নিয়মিত চালিয়ে যাওয়া উচিত বলে মনে করেন অভিজ্ঞ স্ট্রাইকার রাসেল মাহমুদ জিমি।
তিনি বলেন, আমাদের যদি অনূর্ধ্ব১৮ আর অনূর্ধ্ব২১ এর ক্যাম্পটাও নিয়মিত থাকে। তাহলে আমাদের একটা ব্যাকআপ লাইন থাকবে। তাহলে খেলোয়াড়ের সংখ্যাটাও বেড়ে যাবে।
তবে সব কিছু ঠিক থাকলে চলতি বছর ১১মার্চ মাওলানা ভাসানী হকি স্টেডিয়ামে শুরু হবে এশিয়ান হকির সর্বোচ্চ মর্যাদার আসর চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি।

করোনা ভাইরাস লাইভ

আরও সংবাদ

করোনা ভাইরাস লাইভ ›

লাইভ অনুষ্ঠান বুলেটিন ছবি ভিডিও টিভি আর্কাইভ
বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
সর্বশেষ সংবাদ
অনুসদ্ধান
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop