আন্তর্জাতিক সময় জাপানে রাজকন্যা-সাধারণের বিয়ে: অসন্তোষ, বিতর্ক ও সম্মতি

৩০-১১-২০২০, ১৫:২৬

আন্তর্জাতিক সময় ডেস্ক

fb tw
জাপানে রাজকন্যা-সাধারণের বিয়ে: অসন্তোষ, বিতর্ক ও সম্মতি
জাপানের রাজা নারুহিতোর ছোট ভাই ক্রাউন প্রিন্স আকিশিনো জানান, মেয়ে প্রিন্সেস মাকাওকে তার বিশ্ববিদ্যালয়ের ছেলেবন্ধু কেই কোমুরোর সঙ্গে বিয়ে দিতে রাজি হয়েছেন তিনি। তবে তিনি জোর দিয়ে বলেছেন, তার আগে অবশ্যই কোমুরোর মা’কে চলমান আর্থিক বিতর্কের বিষয়টি সমাধান করতে হবে।
তিনি বলেন, আমি তাদের বিয়েতে সম্মতি দিয়েছি। সংবিধান অনুযায়ী নারী-পুরুষের সম্মতির ভিত্তিতে বিয়ে অনুষ্ঠিত হয়। আমি মনে করি বাবা হিসেবে তারা যা চাচ্ছে তাতে সম্মতি দেওয়া জরুরি। সোমবার ক্রাউন প্রিন্সের ৫৫তম জন্মদিন। আগের দিন টোকিওতে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।
চলতি মাসের শুরুতে ২৯ বছর বয়সী প্রিন্সেস মাকাও এক বিবৃতিতে বিয়ের কার্যক্রম সামনে এগিয়ে নেওয়ার দৃঢ় সংকল্প ব্যক্ত করেন। ২০১৮ সালের তাদের বিয়ে হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু সে সময় কোমুরোর মায়ের সঙ্গে তার সাবেক বাগদত্তার আর্থিক বিতর্কের খবর প্রচারে আসে। মায়ের বাগদত্তার কাঁধে কোমুরের পড়াশোনার দায়ভার ছিল।
এ সময় ক্রাউন প্রিন্স তার স্ত্রী, প্রিন্সেস কিকোর বরাতে রাজপরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়, তারা যুগলের অনুভূতিকে সম্মান জানাচ্ছেন।
রোববারের সংসবাদ সম্মেলেন মাকাও এবং কোমুরোর বিষয়ে ক্রাউন প্রিন্সকে জিজ্ঞাসা করা হয়। তখন ক্রিস্যান্থেমাম সিংহাসনের পরবর্তী দাবিদার বলেন, মেয়ের বিয়ের তারিখ এখনো নির্ধারণ হয়নি। আশা করি বিয়েতে অনেক মানুষ অংশ নেবে। অনেক বড় উদযাপন হবে। তবে তার আগে কোমুরোর মা’কে অবশ্যই অমীমাংসিত আর্থিক বিতর্কের বিষয়টি সমাধান করতে হবে। 
তিনি বলেন, আমার কাছে মনে হচ্ছে তাদের বিয়ের সিদ্ধান্তে অধিকাংশ মানুষ খুশি নয়। প্রিন্সেস মাকাও সচেতনভাবেই জানেন, তার বিয়ের পরিকল্পনায় মানুষের পর্যাপ্ত সমর্থন নেই।
আর্থিক বিতর্ক সমাধান প্রসেঙ্গ কোমুরোকে উদ্দেশ করে তিনি বলেন, কোমুরো সংকট সমাধানে বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছে বলে জেনেছি। একটা বিষয় আমি আমি স্পষ্ট করে বলছি, সংকট সমাধানে নেওয়া পদক্ষেপ আরো দৃশ্যমান করা জরুরি।
২০১৮ সালে জন্মদিনের আগে সংবাদ সম্মেলনে ক্রাউন প্রিন্স জানান, তাদের বিয়েতে যদি অনেক মানুষের অংশগ্রহণ না করে, উদযাপন না হয় তাহলে তা আমরা আয়োজন করব না।
কোমুরো ২০১৮ সালের আগস্ট থেকে নিউইয়র্কের ফোরহ্যাম বিশ্ববিদ্যালয়ে বার এক্সাম দেওয়ার পরিকল্পনা নিয়ে পড়াশোনা করছেন। ২০১৭ সালে সেপ্টেম্বরে ২৯ বছর বয়সী প্রিন্সেস মাকাও এবং কোমুরো তাদের বাগদানের পরিকল্পনা ঘোষণা করেন। ২০১৮ সালে নভেম্বরে তাদের বিয়ে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু ফেব্রুয়ারিতে জানিয়ে দেওয়া হয় ২০২০ সাল পর্যন্ত তাদের বিয়ের প্রস্তুতি স্থগিত করা হয়েছে।
সবশেষ সংবাদ সম্মেলনে ক্রাউন প্রিন্স সংবিধান অনুযায়ী যুগলের বিয়ের অধিকারের বিষয় তুলে ধরে বলেন, তিনি তার মেয়ের চাওয়াকে সম্মান করেন। বিয়ে এবং আংটি বদল এক নয় বলেও মন্তব্য করেন। মাকাও এবং তার বাগদত্তা কোমুরোকে আহ্বান জানান, তাদের বিয়ের সবশেষ পরিস্থিতি সম্পর্কে যেন সাধারণ মানুষকে জানানো হয়।
চলতি মাসের শুরুতে দেওয়া বিবৃতিতে মাকাও বলেছেন, তারা বিয়েকে অপরিহার্য হিসেবে বিবেচনা করছেন। তবে তিনি স্বীকার করেছেন, কিছু মানুষ তাদের সিদ্ধান্তকে নেতিবাচকভাবে দেখছে।
জাপানের আইন অনুযায়ী রাজপরিবারের নারী সদস্যরা সাধারণ কোনো মানুষকে বিয়ে করলে রাজকীয় উপাধি ত্যাগ করতে হয়। রাজপ্রাসাদ বিসর্জন দেওয়ার পর গৌরব ধরে রাখার জন্য রাষ্ট্রের পক্ষ থেকে তাদের এককালীন মোটা অঙ্কের অর্থ দিয়ে দেওয়া হয়।

করোনা ভাইরাস লাইভ

আরও সংবাদ

করোনা ভাইরাস লাইভ ›

লাইভ অনুষ্ঠান বুলেটিন ছবি ভিডিও টিভি আর্কাইভ
বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
সর্বশেষ সংবাদ
অনুসদ্ধান
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop