বাণিজ্য সময় রিটার্ন জমা না দিলে যে বিপদ হতে পারে

২৬-১১-২০২০, ১৪:২৬

বাণিজ্য সময় ডেস্ক

fb tw
রিটার্ন জমা না দিলে যে বিপদ হতে পারে
বাংলাদেশে মোট জনসংখ্যার এক শতাংশ মানুষ আয়কর দেন। দেশে ৪০ লাখেরও বেশি টিআইএন নম্বরধারী ব্যক্তি রয়েছে। দিন দিন এ সংখ্যা আরও বাড়ছে। কিন্তু সেই হারে বাড়ছে না আয়কর জমা দেয়া অনুপাত। রাজস্ব বোর্ডের তথ্যমতে প্রতি বছর ২০ থকে ২২ লাখ মানুষ আয়কর রিটার্ন জমা দেন। অর্থাৎ দেশে টিআইএন নম্বরধারী অর্ধেক মানুষ বছর শেষে সরকারের কাছে আয়কর রিটার্ন জমা দেন না। 
চলতি বছর আয়কর জমা দেয়া শেষ তারিখ ৩০ নভেম্বর। করোনাভাইরাস মহামারির কারণে এ বছর অনুষ্ঠিত হয়নি আয়কর মেলা। অনেকেই এখন আয়কর রিটার্ন জমা দেয়ার জন্য আয়কর মেলার জন্য অপেক্ষা করেন।
অনেকে আছেন টিআইএন নম্বর থাকা সত্বেও আয়কর রিটার্ন জমা দেন না, কয়েক বছর ধরে দেননি কিংবা নানা কারণে দিতে পারেননি। এর ফলে পড়তে পারেন বিভিন্ন ধরনের সমস্যায়। জেনে নিন সেগুলো কী এবং তা সমাধানের উপায়।
রিটার্ন জমা না দিলে যেসব সমস্যার সম্মুখীন হতে পারেন:
নাম পরিচয় প্রকাশ না করে একজনের অভিজ্ঞতা সম্পর্কে বলছি। ঢাকার এই চাকরিজীবী নিয়মিত কর দিতেন এবং সময়মত রিটার্নও জমা দিতেন। এক পর্যায়ে বেশ কিছুদিন তার চাকরি ছিল না। বেশ কিছুদিন পর তিনি খুব অল্প বেতনে নতুন যে চাকরি পেলেন তখন আর তিনি করযোগ্য ছিলেন না। প্রথমত আয় নেই, তারপর আর করযোগ্য নন চিন্তা করে পরপর তিন বছর রিটার্ন জমা দেননি তিনি। কিন্তু সমস্যা শুরু হল যখন তিনি একটা ব্যবসা দাঁড় করানোর জন্য ট্রেড লাইসেন্স করাতে গেলেন।
তিনি বলেন, 'টিন (টিআইএন) নম্বর যেহেতু ছিল, সেটা হালনাগাদ হতে হবে, তা না হলে লাইসেন্স পাওয়া যাবে না। কিন্তু ব্যবসা চালু করতে অনেক সমস্যা দেখে সিদ্ধান্ত বদল করে বিদেশ যাওয়ার পরিকল্পনা করলাম। সেখানে আরেক ঝামেলা। ভিসার জন্য সর্বশেষ তিন বছরের ট্যাক্স ফাইল চাওয়া হল। তখন আয়কর বিষয়ক প্রফেশনাল কারো কাছে না গিয়ে উপায় ছিল না।'
একজন আইনজীবী নিয়োগ দিয়ে, শুনানি করে, একটি নির্দিষ্ট অঙ্কের অর্থ জমা দিয়ে তবেই তিনি রিটার্ন জমা দেয়ার ঝামেলা মেটাতে পেরেছেন।
কিন্তু তারপরও ঝামেলা শেষ হয়নি। সনদ নিতে গিয়ে তাকে দফায় দফায় রাজস্ব বোর্ডের আয়কর অফিসে যেতে হয়েছে।
এমন একজনকে পাওয়া গেল যিনি নির্ধারিত সময়ের মাস চারেক পর রিটার্ন দাখিল করতে গিয়ে জানলেন কেন তিনি সময়মত কাজটি করেননি তার জবাব দিতে শুনানি হবে। শুনানির নোটিশ পেয়েছেন, কিন্তু এরপর আট মাস পার হয়ে নতুন বছরের রিটার্ন জমা দেয়ার সময় চলে এসেছে তবুও তিনি নোটিশেরই জবাব দেননি।
রিটার্ন জমা না দেয়ার আরও যেসব বিপদ
ঢাকার একজন আয়কর আইনজীবী মিজানুর রহমান বলেন, 'একজন ব্যক্তি রিটার্ন জমা না দিয়ে বা সমস্যা সমাধান না করে তিনি নিজের জন্য বড় ধরনের ঝামেলার পথ তৈরি করছেন। যদি কোন ব্যক্তি সময়মত আয়কর রিটার্ন দিতে ব্যর্থ হন এক্ষেত্রে অধ্যাদেশ অনুযায়ী এক হাজার টাকা অথবা আগের বছরের ট্যাক্সের দশ শতাংশ জরিমানা করা যাবে। এ দুটির ভেতরে যেটি পরিমাণে বেশি সেই অংকটি পেনাল্টি হতে পারে।'
তিনি আরও বলেন, 'কয়েক বছর ধরে যদি কেউ রিটার্ন দাখিল না করেন তাহলে ওই জরিমানা ছাড়াও যতদিন ধরে তিনি রিটার্ন দেননি ওই পুরো সময়ের দিনপ্রতি ৫০ টাকা করে জরিমানা হতে পারে। তবে তা যতদিনই হোক না কেন নতুন করদাতা হলে সবমিলিয়ে জরিমানার পরিমাণ পাঁচ হাজার টাকার উপরে নেয়া হবে না। আর পুরনো করদাতা হলে আগের বছর যে পরিমাণ অর্থ আয়কর হয়েছে সেটিসহ ওই অর্থের ৫০ শতাংশ পর্যন্ত বাড়তি দিতে হতে পারে।'
সূত্র: বিবিসি বাংলা

করোনা ভাইরাস লাইভ

আরও সংবাদ

করোনা ভাইরাস লাইভ ›

লাইভ অনুষ্ঠান বুলেটিন ছবি ভিডিও টিভি আর্কাইভ
বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
সর্বশেষ সংবাদ
অনুসদ্ধান
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop