খেলার সময় করোনায় বাস্তবতাকে মেনে নিয়েই মাঠে জকোভিচ

২২-১১-২০২০, ০২:৫৯

ফারজানা মুমু

fb tw
করোনায় বাস্তবতাকে মেনে নিয়েই মাঠে জকোভিচ
৫০ শতাংশ নয়, অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে ১০ শতাংশ দর্শক উপস্থিতিই অনেক। স্বাস্থ্য নিরাপত্তাকে সবার আগে গুরুত্ব দেয়া উচিৎ। এমনটাই মনে করেন সার্বিয়ান টেনিস তারকা নোভাক জকোভিচ। জানান, দর্শকশূন্য গ্যালারিতে খেলাটা অদ্ভূদ মনে হলেও, এই করোনায় বাস্তবতাকে মেনে নেয়াই শ্রেয়। এছাড়া মহামারীর মধ্যে আগামী বছর হতে যাওয়া টেনিসের নতুন মৌসুম নিয়েও চিন্তিত জকো।
চলতি বছর কেবল অস্ট্রেলিয়ান ওপেন অনুষ্ঠিত হয়েছে নির্ধারিত সূচি অনুযায়ী। করোনার কারণে টেনিসের বাকি আসরগুলোর সূচিতে পড়েছে বাধা। পিছিয়েছে বেশিরভাগ। বাতিল হয়েছে উইম্বলডন। এবার করোনার দ্বিতীয় ধাপে আবারো সূচি বিপর্যয়ে আগামী বছরের টেনিস মৌসুম।
নির্ধারিত সময় অনুযায়ী জানুয়ারিতে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা বছরের প্রথম গ্র্যান্ড স্ল্যাম অস্ট্রেলিয়ান ওপেন। কিন্তু গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে দেশটির কোভিড-১৯ প্রোটোকল অনুযায়ী টেনিস অস্ট্রেলিয়া নাকি জানুয়ারিতে হতে যাওয়া অস্ট্রেলিয়ান ওপেন পিছিয়ে নিতে পারে ফেব্রুয়ারি কিংবা মার্চে।
রেকর্ড আটবার অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের শিরোপা জিতেছেন সার্বিয়ান টেনিস তারকা নোভাক জকোভিচ। মুখিয়ে আছে বছরের প্রথম গ্র্যান্ড স্ল্যাম খেলতে। সেই সঙ্গে করোনার কারণে আসন্ন মৌসুম নিয়ে শঙ্কায় আছেন জকো।
সার্বিয়ার টেনিস খেলোয়াড় নোভাক জকোভিচ বলেন, 'আমি জানি না আগামী মৌসুমের টুর্নামেন্ট কিংবা গ্র্যান্ডস্ল্যামগুলো ইনডোরে হবে, নাকি আউটডোরে হবে। ইনডোরে হলে একরকম পরিবেশ থাকবে, আউটডোরে আরেক রকম। তবে, এই করোনা মহামারীর মধ্যে অবশ্যই ভিন্ন একটা পরিবেশ থাকবে। এতটুকু বলতে পারি দর্শক উপস্থিতি তেমন থাকবে না। আর এভাবে খেলতে কিছুটা অদ্ভুত তো লাগবেই।'
চলতি বছর বেশ কিছু টুর্নামেন্ট দর্শকের উপস্থিতি ছাড়াই অনুষ্ঠিত হয়েছে। তবে, শোনা যাচ্ছে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে উপস্থিত হওয়ার অনুমতি মিলবে প্রায় অর্ধেক দর্শকের। তাই নিয়ে চিন্তিত ১৭টি গ্র্যান্ড স্ল্যামের এই মালিক।
সার্বিয়ার টেনিস খেলোয়াড় নোভাক জকোভিচ বলেন, 'আমি শুনেছি অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে স্টেডিয়ামে ৫০ শতাংশ দর্শক উপস্থিতি থাকবে। কিন্তু এটা ঠিক হবে না। আমার মনে হয়, করোনার এই পর্যায়ে এসে ১০ শতাংশ দর্শক উপস্থিতিই আমাদের জন্য অনেক। মানছি কোর্টে সমর্থক ও ভক্তদের উত্তেজনা আমাদের খেলাকে আরো প্রাণবন্ত করে তোলে। তবে সবার আগে স্বাস্থ্যের নিরাপত্তার দিকটাও দেখতে হবে।''
মেলবোর্নে অস্ট্রেলিয়ান ওপেন কোর্টে গড়ানোর আগে খেলোয়াড়দের থাকতে হবে দুই সপ্তাহের কোয়ারেন্টিনে।

করোনা ভাইরাস লাইভ

আরও সংবাদ

করোনা ভাইরাস লাইভ ›

লাইভ অনুষ্ঠান বুলেটিন ছবি ভিডিও টিভি আর্কাইভ
বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
সর্বশেষ সংবাদ
অনুসদ্ধান
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop