বাংলার সময় তীব্র স্রোত, ৪ মাসে পদ্মায় বসেনি নতুন কোনো স্প্যান

০১-১০-২০২০, ০৯:৩২

এহসান জুয়েল

fb tw
পানির প্রবল স্রোতের কারণে গত ৪ মাস বসানো যায়নি নতুন কোন স্প্যান। আশার কথা হচ্ছে, পানি কমে এলে আগামী ডিসেম্বরের মধ্যেই বাকি ১০টি স্প্যান বসিয়ে ফেলার পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে। একই সঙ্গে এগিয়ে নেয়া হচ্ছে রোড ও রেল স্ল্যাব বসানোর কাজ।
১০ জুন জাজিরা প্রান্তে ৩১তম স্প্যানটি বসানোর মধ্য দিয়ে বর্তমানে দৃশ্যমান ৪ হাজার ৬৫০ মিটার পদ্মা সেতু। এরপর নদীতে পানি বাড়তে শুরু করলে ২৪ জুন ৩২ নম্বর স্প্যান বসানোর পরিকল্পনা বাতিল করা হয়।
আগের রেকর্ড বলছে, প্রতিবছর ১৫ সেপ্টেম্বরের মধ্যে পদ্মার পানি স্বাভাবিক হয়ে আসে। ৪ দশমিক ৮ মিটারের বেশি পানি হলে কাজ করা সম্ভব হয় না, সেখানে এ বছর এখনো নদীতে পানির উচ্চতা ৫ দশমিক ৫ মিটারের বেশি। একই সঙ্গে স্রোতের গতি এখন প্রতি সেকেন্ডে ২ দশমিক ৫ মিটার। স্বাভাবিক স্রোতের গতি থাকে ১ দশমিক ৫ মিটার। সব কিছু মিলে ভোগান্তি যেন পদে পদে।
প্রকল্প পরিচালক শফিকুল ইসলাম বলেন, বন্যার স্রোতের কারণে নদী পারাপার, মালামাল নিয়ে যাওয়ায় বিঘ্ন ঘটছে। এতে অনেক সময় লাগছে। রাতে কাজ করতে সমস্যা হচ্ছে।  
পানির উচ্চতা স্বাভাবিক হতে শুরু করেছে। বর্তমানে বেশি পানি থাকায় মাওয়া প্রান্তে ড্রেজিংয়েরও কোন জটিলতা নেই। ১০টি স্প্যানের মধ্যে ৫টি পুরো প্রস্তুত। রং করা বাকি ৩টির। পানি কমে এলে অক্টোবর, নভেম্বর মাসে ৪টি করে আর বাকি দুটি স্প্যান ডিসেম্বর মাসে বসিয়ে দেয়ার পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে।
সেতুতে মোট ৩ হাজার করে রেল ও রোড স্ল্যাব বসানোর কথা। সুখবর হলো এর মধ্যে ১ হাজার ৫৭৬টি রেল আর ১ হাজার ১০টি রোড স্ল্যাব বসানো হয়ে গেছে।

করোনা ভাইরাস লাইভ

আরও সংবাদ

করোনা ভাইরাস লাইভ ›

লাইভ অনুষ্ঠান বুলেটিন ছবি ভিডিও টিভি আর্কাইভ
বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
সর্বশেষ সংবাদ
অনুসদ্ধান
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop