বিনোদনের সময় তারকাদের ফেসবুক আইডি থেকে প্রতারণা

২৭-০৯-২০২০, ১৯:৪৪

মহিব আল হাসান

fb tw
গেল কয়েক বছর আগে ফেসবুক আইডি হ্যাক হয় চিত্রনায়িকা মৌসুমী। এরপর থেকে আর কোনো ফেসবুক আইডি নেই তার।  অথচ ফেসবুক ঘাটলে দেখা যাচ্ছে ছবি সম্মিলিত এমন অসংখ্য আইডি কিংবা ফ্যানপেজ। যা দিয়ে প্রায়ই প্রতারণার শিকার হচ্ছেন তার ভক্তরা। 
শুধু মৌসুমী নয়, এই ধরনের প্রতারণার শিকার হচ্ছেন এমন তারকার সংখ্যা অসংখ্য। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহার করেন না আরেক চিত্রনায়িকা চম্পাও। তবুও তার নামে ফেসবুক আইডি খুলে সামাজিক কাজের কথা বলে সাহায্য চেয়ে পোস্ট করছেন প্রতারকরা। এ বিষয়ে সময় এন্টারটেইন্টমেন্টের সাথে কথা বলেছেন তিনি।
চম্পা বলেন, ইমেজটা নষ্ট হচ্ছে। যার যে ভক্ত আছে হয় কি, যার যে ভক্ত, ভক্তরা অনেক সরল-সোজা হয় কিন্তু। মানে কেউ কাউকে পছন্দ করলে, যার যার ভক্ত, শিল্পীর ভক্ত থাকে আলাদা আলাদা। তারা কিন্তু ভক্তের প্রতি কিন্তু তাদের কাউকে হয়তো খুব আপন মনে করে। তাদের ছবি দেখতে দেখতে, বা তাদের ভালো লাগতে লাগতে ভক্তরা আপন হয়তো বোন, মা বা স্বপ্নের রানি হিসেবে বা এরকম একটা কল্পনা তাদের মধ্যে থাকে। তো আমি মনে করি তাদের না, কিছু কিছু ভক্ত, তাই বলে সবাই না। আর অনেক ভক্তরা আছে খুব সতর্ক বা তাদের সেন্স অনেক কাজ করে। অনেকে আবেগে, আগেবের মধ্যেই চলে অনেক ভক্তরা। সেসব ভক্তরা না বেশিভাগ প্রতারিত হচ্ছে। প্রতারিত হওয়া ঠিক নয়। হ্যাঁ, এটা অন্যায়, খারাপ লাগে। এটা তো গেলো ভক্তের কথা।
‘আরেকটা ইমেজ, একটা আর্টিস্টের ইমেজটা অবশ্যই নষ্ট হচ্ছে। একটা আর্টিস্ট একটা ইমেজ তৈরি করে তিলে তিলে, একদিনে একটা ইমেজ তৈরি হয় না। এই একটা ইমেজ তৈরি করতে তিলে তিলে অনেকটা খরকাঠ পুড়িয়ে সময় পেরিয়ে এই একটা ইমেজে এসে পৌঁছায়। সেই ইমেজটা কিন্তু ক্ষুন্ন হয়ে যায় ভক্তদের কাছে, অনেক ক্ষুন্ন হয়ে যায়। এটা একদমেই ঠিক নয়, একদমই ঠিক নয়। এটা তো আছে। তারপরও ভুল বোঝাবুঝি। হয়ত যারা ভিকটিম হচ্ছেন তারা হয়তো জানেন না তাদের সম্পর্কে এগুলো করা হচ্ছে। অথচ তাদেরকে নিয়ে এমন এমন লেখা আছে, যেগুলো বিতর্কিত দেশ বিরোধী কথা অনেক কিছু আছে এর ভিতরে। সেটা অন্যায় কথা নয়, এটা ঠিক নয়।’
ঢালিউডের অগ্নিকন্যা খ্যাত অভিনেত্রী মাহিয়া মাহি। তার ফেসবুক আইডি ও ফ্যানপেজ হ্যাকড হয় গতবছর। এ নিয়ে নানা বিড়ম্বনার মধ্য দিয়ে যেতে হয়েছিল তাকে। তারকাদের এমন বিড়ম্বনা এড়াতে সাইবার ইউনিট তৎপর ভূমিকা রাখবেন, এমন প্রত্যাশা উদীয়মান এই অভিনেত্রীর। 
তারাকাদের এমন নানা অভিযোগ নিয়ে সময় এন্টারটেইনমেন্ট, এবার দারস্থ সাইবার সিকিউরিটি অ্যান্ড ক্রাইম বিভাগের উপ কমিশনার নাজমুল ইসলামের কাছে। তিনি বললেন, সুরক্ষা পেতে তারকাদেরও সচেতন থাকতে হবে। পাশাপাশি সাইবার ইউনিটের তৎপরতার কথাও জানালেন তিনি।
সাইবার সিকিউরিটি অ্যান্ড ক্রাইম বিভাগ উপকমিশনার নাজমুল ইসলাম বলেন, সারা পৃথিবী জুড়ে মানুষের বিভিন্ন আইডেন্টি হ্যাক্ড হয়। আর ফেসবুক সবচেয়ে বেশি হ্যাক্ড হয় বাংলাদেশে। আমি জানি না কেনো হ্যাক্ড হয়। যারা এসব কাজ করে তারা আসলে কি মজা পায় তা জানি না। আর যারা আমাদের দেশের তারকা, তারা আমাদের দেশের সম্পত্তি। তাদের সুরক্ষা দেওয়া জরুরি। আর ফেসবুক সুরক্ষার জন্য অবশ্যই টু-ফ্যাক্টর অথেনটিক, ট্রাস্টটেড কন্ট্রাক্ট প্রোটেকশন দেওয়া জরুরি। তাহলে সহজে কেউ ফেসবুক আইডি হ্যাক্ড করতে পারবে না। 
বর্তমান সময়ে সাইবার ক্রাইম সবারই মাথা ব্যথার কারণ। বিশেষত তারকাদের ক্ষেত্রে এ বিষয়টি দিনদিন জটিল আকার ধারণ করছে। এ বিষয়টিতে সরকার আরো বেশি গুরত্ব দিবেন এমনটায় প্রত্যাশা সকল তারকাদের।

করোনা ভাইরাস লাইভ

আরও সংবাদ

করোনা ভাইরাস লাইভ ›

লাইভ অনুষ্ঠান বুলেটিন ছবি ভিডিও টিভি আর্কাইভ
বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
সর্বশেষ সংবাদ
অনুসদ্ধান
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop