বাংলার সময় স্কুলছাত্রী নীলা হত্যা: প্রধান আসামি মিজানের সহযোগী গ্রেফতার

২৩-০৯-২০২০, ১১:০৬

ওয়েব ডেস্ক

fb tw
স্কুলছাত্রী নীলা হত্যা: প্রধান আসামি মিজানের সহযোগী গ্রেফতার
সাভারে প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় নীলা রায় (১৪) নামে এক স্কুলছাত্রীকে ছুরিকাঘাতে হত্যা মামলায় বুধবার (২৩ সেপ্টেম্বর) একজনকে মানিকগঞ্জ থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। হত্যার রহস্য উদঘাটনে তাকে সাত দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠানো হবে।
এ হত্যার ঘটনায় অভিযুক্ত ও প্রধান আসামি কিশোর গ্যাং সদস্য মিজানুরের সহযোগী সেলিমকে (২৮) পালানোর সময় গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ওই যুবক হত্যাকাণ্ডের সময় ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলো বলে তাৎক্ষণিকভাবে জানিয়েছে পুলিশ। মঙ্গলবার (২২ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে মানিকগঞ্জের আরিচাঘাট এলাকা থেকে ফেরি পারাপারের সময় তাকে ধরে পুলিশ।
গ্রেফতার সেলিম পালোয়ান বাগেরহাট জেলার হাফেজ পালোয়ানের ছেলে। সে সাভারের ব্যাংক কলোনী এলাকায় পরিবারের সাথে বসবাস করত।
পুলিশ জানায়, এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনার পরদিন নারায়ণ রায় মামলা করেন। এতে প্রধান আসামি করা হয় মিজানুর রহমান ও তার বাবা আব্দুর রহমান এবং মা নাজমুন নাহারসহ অজ্ঞাতনামাদের বিরুদ্ধে। এরপর থেকে পলাতক ছিলেন আসামিরা। সবশেষ মোবাইল ফোন প্রযুক্তি ব্যবহার করে অভিযুক্ত মিজানের সহযোগী সেলিমের অবস্থান শনাক্ত করে পুলিশ। পরে মানিকগঞ্জের আরিচাঘাট এলাকায় ফেরি পারাপারের সময় তাকে গ্রেফতার করা হয়।
সাভার মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সাইফুল ইসলাম জানান, নীলা হত্যা মামলায় প্রধান আসামি মিজানুরের সহযোগী সেলিমকে পালানোর সময় মঙ্গলবার মধ্যরাতে গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতার সেলিম অভিযুক্ত মিজানুরের সহযোগী। হত্যার রহস্য উদঘাটনে তাকে সাত দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠানো হবে।
প্রসঙ্গত: এ ঘটনায় সোমবার সাভার থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন নীলার বাবা নারায়ণ রায়। বখাটে মিজান ছাড়াও এ মামলার আসামি করা হয়েছে তার বাবা-মা ও অজ্ঞাত কয়েকজনকে। ছুরিকাঘাতে স্কুল ছাত্রীকে হত্যার পর থেকে অভিযুক্ত যুবক মিজানুর রহমান পলাতক রয়েছে। রোববার (২০ সেপ্টেম্বর) রাত ৯টার দিকে সাভার মডেল থানাধীন পালপাড়া মহল্লার গার্লস স্কুল রোডে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।
মানিকগঞ্জ জেলার বালিরটেক এলাকার নারায়ণ রায়ের মেয়ে নীলা। তার বাবা-মার সঙ্গে পৌর এলাকার কাজী মোকমা পাড়া একটি বাড়িতে ভাড়া থেকে স্থানীয় অ্যাসেড স্কুল নামে একটি বিদ্যালয়ে দশম শ্রেণিতে লেখাপড়া করত। অভিযুক্ত যুবক মিজানুর রহমান চৌধুরী একই এলাকার বাসিন্দা।
নীলার স্বজনরা জানান, দীর্ঘদিন ধরে বখাটে মিজানুর নীলাকে বিভিন্ন সময় প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। কিন্তু প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করার পরও ওই যুবক নীলাকে উত্ত্যক্ত করত। সবশেষ রোববার রাতে শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যায় নীলাকে হাসপাতালে অক্সিজেন দিতে নিয়ে যায় তার ভাই অলক। পরে হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফেরার পথে পালপাড়া এলাকায় তাদের গতিরোধ করে বখাটে যুবক মিজানুর। এ সময় নানা ভয়ভীতি দেখিয়ে অলককে পাঠিয়ে দিয়ে নীলার বিভিন্ন স্থানে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায় মিজানুর। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।
 

করোনা ভাইরাস লাইভ

আরও সংবাদ

করোনা ভাইরাস লাইভ ›

লাইভ অনুষ্ঠান বুলেটিন ছবি ভিডিও টিভি আর্কাইভ
বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
সর্বশেষ সংবাদ
অনুসদ্ধান
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop