ভাইরাল ‘উই’ এর পক্ষে-বিপক্ষে ট্রল

১৩-০৯-২০২০, ১৯:৪৬

ওয়েব ডেস্ক

fb tw
‘উই’ এর পক্ষে-বিপক্ষে ট্রল
ফেসবুকভিত্তিক নারী উদ্যোক্তাদের প্ল্যাটফর্ম উইমেন অ্যান্ড ই-কমার্স ফোরাম (উই) বা উই নিয়ে সম্প্রতি ট্রল বানিয়েছে অনলাইন রম্য পত্রিকা ই-আরকি। যা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়েছে। সাড়ে ৯ লাখ সদস্যের এই গ্রুপে উদ্যোক্তাদের ৮০ শতাংশই নারী।
উদ্যোক্তারা উই গ্রুপে নিজেদের পরিচয় দেওয়ার আগে নিজের নাম লিখে তিনি কোন পণ্য নিয়ে কাজ করছেন তা উল্লেখ করেন। এ থেকেই ট্রলের সৃষ্টি। এখন সবাই নিজেদের মতো করে বা বলা যায় ব্যঙ্গ করে বলছেন, তিনি কোন বিষয় নিয়ে কাজ করছেন। আর সেই সব পোস্টের নিচের বিভিন্ন কমেন্টে উই এর সদস্যদের নিয়ে হাসাহাসি করছেন অনেকে। আবার কেউ কেউ এ ধরনের ট্রলের বিরোধিতাও করছেন।
ফেসবুকে বিষয়টি হাস্যরসের সৃষ্টি করলেও উই গ্রুপের অ্যাডমিন এবং সদস্যরা এ ধরনের ট্রলে বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়েছেন। তারা বলছেন, ট্রল করার মতো কোনো কাজ উই গ্রুপ করেনি। করোনাভাইরাসের বিস্তারের মধ্যেও উই গ্রুপের সদস্যরা ভালো ব্যবসা করেছেন। তৃণমূল পর্যায়ের নারীরাও লাখ লাখ টাকার ব্যবসা করছেন। উদ্যোক্তারা নিজেদের পরিচয় দিয়েই পণ্য বিক্রি করেন। শুধু উই গ্রুপ না, ফেসবুক বা অনলাইনের অন্য উদ্যোক্তারাও এভাবেই নিজেদের পরিচিতি তুলে ধরেন। উই এর সদস্য সংখ্যা বেশি হওয়ায় এবং উই এর সদস্যরা ফেসবুকে সক্রিয় থাকায় হয়তো বিষয়টি সবার চোখে পড়েছে।
এ বিষয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের অধ্যাপক গীতিআরা নাসরীন গণমাধ্যমকে বলেন, নারী উদ্যোক্তাদের হেয় করার এ রকম ট্রল নিম্নরুচির পরিচয়। কোভিড ১৯ এর এই সংকটকালে নানা ধরনের অনলাইন ব্যবসা ও সেবা বিস্তার লাভ করেছে। ‘উই’ যতোটুকু জানি নারী উদ্যোক্তাদের নিয়ে কাজ করছে। একটি নবীন উদ্যোক্তাদের প্ল্যাটফর্মে উদ্যোক্তারা নিজেদের কীভাবে উপস্থাপন করেন এ নিয়ে হঠাৎ ফেসবুকে নানা ধরনের ব্যঙ্গাত্মক উপস্থাপন দেখে আমি ক্ষুব্ধ বোধ করেছি! যদি বিক্রয় পদ্ধতিতে অথবা সেবাদানে কোনো সমস্যা থাকে, তবে এ নিয়ে সমালোচনা হতে পারে। কিন্তু এরকম ট্রল নোংরামি।
উই গ্রুপ ফেসবুকে আনুষ্ঠানিকভাবে আত্মপ্রকাশ করে ২০১৭ সালের ২৫ অক্টোবর। অনলাইনে উদ্যোক্তাদের প্রশিক্ষণ, পণ্য বিক্রির কৌশল শেখানোসহ বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা দেওয়ার দেশীয় পণ্যের প্ল্যাটফর্ম এটি।
‘উই’ গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান নাসিমা আক্তার (নিশা)। তিনি পাক্ষিক অনন্যার বছরের আলোচিত নারী ‘অনন্যা শীর্ষদশ ২০১৯’ সম্মাননা পেয়েছেন। তিনি বলেন, সরকারের হাইটেক পার্কসহ বিভিন্ন বিভাগের সঙ্গে কাজ করছে উই। উই সরকারের কোনো নীতিমালা ভঙ্গ করেছে সে ধরনের অভিযোগও কেউ দিতে পারবে না। তাই উই ট্রলে ভয় পায় না।
ই-আরকি পত্রিকার সম্পাদক সিমু নাসের গণমাধ্যমকে বলেন, ‘উই’ এর কোনো অভিযোগের ভিত্তিতে মিমগুলো বানানো হয়েছে বিষয়টি তেমন না। এ ধরনের মিমের পেছনে সব সময় নেতিবাচক উদ্দেশ্য থাকে বিষয়টিও তেমনও না। ফেসবুকে এখন তেমন কিছু নেই, তাই উই’কে কেন্দ্র করে বানানো মিমগুলো মানুষ পছন্দ করছে। এতে উই’র প্রচারও বাড়ছে। দুইদিন পরই দেখা যাবে মানুষ অন্য কিছু নিয়ে মেতেছে।

করোনা ভাইরাস লাইভ

আরও সংবাদ

করোনা ভাইরাস লাইভ ›

লাইভ অনুষ্ঠান বুলেটিন ছবি ভিডিও টিভি আর্কাইভ
বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
সর্বশেষ সংবাদ
অনুসদ্ধান
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop