ভ্রমণ করোনার ধাক্কা কাটিয়ে প্রাণ ফিরছে রাঙ্গামাটির পর্যটনে

১৩-০৯-২০২০, ১০:২৫

হেফাজত সবুজ

fb tw
করোনার ধাক্কা কাটিয়ে প্রাণ ফিরছে রাঙ্গামাটির পর্যটনে
ধীরে ধীরে প্রাণ ফিরছে পাহাড়ি জেলা রাঙামাটির পর্যটনে। করোনা মহামারির কারণে প্রায় পাঁচ মাস বন্ধ থাকার পর খুলে দেয়া হয়েছে পর্যটন কেন্দ্রগুলো। এতে হাসি ফুটেছে পর্যটকসংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীদের। তবে কেউ কেউ মানছেন না স্বাস্থ্যবিধি। 
করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে গত ১৮ মার্চ রাঙামাটির সব পর্যটন কেন্দ্র বন্ধ ঘোষণা করা হয়। প্রায় পাঁচ মাস বন্ধ থাকার পর পর্যটকদের জন্য খুলে দেয়া হয়েছে পর্যটন কেন্দ্রগুলো। পর্যটকও আসছেন। ছুটির দিনগুলোতে বাড়ে দর্শনার্থী সমাগম। দীর্ঘসময় ঘরে বন্দী থাকার পর প্রাকৃতিক সৌন্দর্য উপভোগ করতে পর্যটকরা ভিড় করছেন পাহাড়, ঝর্ণা আর হ্রদের রাঙামাটিতে। দীর্ঘদিন পর ভ্রমণে বের হয়ে পর্যটকরা জানিয়েছেন তাদের উচ্ছ্বাসের কথা। 
পরিবার নিয়ে ঘুরতে আসা একজন জানান, অনেক দিন পর পরিবার-পরিজন নিয়ে তিনি ঘুরতে বের হয়েছেন। খুব উপভোগ করছেন।
আরেকজন এসেছেন তার দীর্ঘদিনের এক ঘেয়েমি কাটানোর জন্য। রাঙ্গামাটির লেক আর ঝুলন্ত ব্রিজে মুগ্ধতার কথা জানান ভ্রমণে আসা সকলেই। তাদের অভিব্যক্তি, 'এক কথায় অসম্ভব সুন্দর একটা জায়গা এই রাঙ্গামাটি।' 
তবে, যে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে এতো দিন বন্ধ ছিল ঘুরে বেড়ানো, সেই করোনা না গেলেও যারা ঘুরতে আসছেন তাদের অনেকেই মানছেন স্বাস্থ্যবিধি। কেউ বলছেন, মাস্ক পড়লে তার নিঃশ্বাস নিতে কষ্ট হয়। কারও জবাব, ফ্রেশ হওয়ার জন্য মাস্কটা খুলেছেন এখনই আবার পড়বেন। আবার কেউ মাস্ক পড়েননি কারণ তিনি ছবি তুলবেন। এমন সব নানা অজুহাতে মানা হচ্ছে না স্বাস্থ্যবিধি। 
পর্যটক আসতে শুরু করায় কয়েক মাসের ক্ষতি পুষিয়ে ওঠার পরিকল্পনাও করছেন হোটেল ব্যবসায়ী ও বোট ঘাট ইজারাদার।
একজন ট্যুর অপারেটর জানান, নভেম্বর, ডিসেম্বর, জানুয়ারি- এই তিন মাস পর্যটন মৌসুম। আশা করছেন পর্যটক বাড়বে। আর ছুটির দিনগুলোতে বেশ পর্যটক আসছেন বলে জানান পর্যটন বোট ঘাটের ইজারাদার রমজান আলী। 
এদিকে, পর্যটকদের নিরাপত্তা নিশ্চিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানিয়েছে ট্যুরিস্ট পুলিশ। শুধু নিরাপত্তাই নয়, সেই সঙ্গে ভ্রমণে আসা সকলেই যেন স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলেন সে ব্যাপারেও বিভিন্ন পরামর্শ দেয়া হচ্ছে বলে জানান রাঙ্গামাটি ট্যুরিস্ট পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাকসুদ আহাম্মদ। 
তবে, এখনও দলভিত্তিক পর্যটকদের আসা শুরু হয়নি বলে জানান রাঙামাটি পর্যটন কমপ্লেক্সের ব্যবস্থাপক সৃজন বিকাশ বড়ুয়া। তিনি জানান, বাণিজ্যিক কারণে যাদের রাঙ্গামাটি ভ্রমণের প্রয়োজন হয়, তারাই আসছেন। এখন পর্যটকদের কোন দল আসছেন না; যারা বাস নিয়ে দলবদ্ধভাবে আসেন তারা এখনও আসা শুরু করেননি। 
স্বাভাবিক পরিস্থিতিতে প্রতি বছর রাঙামাটিতে প্রায় ৫ লাখ পর্যটকের আগমন ঘটে। 

করোনা ভাইরাস লাইভ

আরও সংবাদ

করোনা ভাইরাস লাইভ ›

লাইভ অনুষ্ঠান বুলেটিন ছবি ভিডিও টিভি আর্কাইভ
বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
সর্বশেষ সংবাদ
অনুসদ্ধান
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop