আন্তর্জাতিক সময় লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশি খুনের কূল কিনারা নেই

১১-০৭-২০২০, ১২:১২

সৈয়দ ইফতেখার

fb tw
লিবিয়ায় কাদের হাতে খুন হন ২৬ বাংলাদেশি? দেড় মাস পরও তার কূল কিনারা করা যায়নি। এ অবস্থায় লিবিয়া ও মধ্যপ্রাচ্যে দালালদের নেটওয়ার্ক ভাঙা না গেলে, মানবপাচার নিয়ন্ত্রণ করা যাবে না বলে মত বিশ্লেষকদের। আর পররাষ্ট্রমন্ত্রী সময় সংবাদকে বলেন, বিচার করা গেলেই কেবল পরিস্থিতির উন্নতি সম্ভব।
লিবিয়া থেকে যারা অবৈধভাবে সাগর পাড়ি দিয়ে ইউরোপের বিভিন্ন দেশে যাওয়ার চেষ্টা করেন, তাদের মধ্যে আফ্রিকার কয়েকটি দেশের পরেই আসে বাংলাদেশের নাম। দালাল চক্রের খপ্পরে পড়েই বিপদসঙ্কুল পথে উন্নত দেশে যাওয়ার তাদের এই চেষ্টা।
গেল সপ্তাহেই ইতালি উপকূল থেকে উদ্ধার হওয়া অভিবাসন প্রত্যাশীদের অনেকেই বাংলাদেশি। আর গেলো ২৮শে মে, লিবিয়ার সিমদাহ শহরে ২৬ বাংলাদেশি হত্যার বিষয়টি মানবপাচারের বিভৎস রূপ দেখিয়েছে বিশ্বকে। এখনও সেই হত্যাকারীদের চিহ্নিত করা যায়নি।
ব্র্যাক অভিবাসন কর্মসূচি প্রধান শরিফুল হাসান বলেন, 'যারা ত্রিপলি বা তুরস্কে বসে এই পাচার কাজটা নিয়ন্ত্রণ করছে, সমুদ্র পথে মানুষকে নিচ্ছে তাদের বিরুদ্ধে যদি ব্যবস্থা না নেওয়া যায় তাহলে এ ধরনের ঘটনা বন্ধ হবে না।'
পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন বলছেন, বিদেশেও বাংলাদেশি দালালদের বিচার করা গেলে, নিয়ন্ত্রণ করা যাবে এই অপকর্ম।
তিনি বলেন, 'দালালগুলোরে সহজে ধরা যায় না। যখন ধরা যায় পুলিশ কেস করে। কেসটা এত দুর্বল যে বিচারক তাদের ছেড়ে দেয়। কয়েক বছরে লাখ খানেক মামলা হয়েছে কয়টার বিচার হয়েছে?'
ইউরোপে আশ্রয়প্রার্থী বাংলাদেশিদের আবেদন প্রত্যাখ্যাত হওয়ার হার অন্য অনেক দেশের তুলনায় বেশি। করোনা পরিস্থিতির কারণে এই শঙ্কা আরও বেড়েছে।

করোনা ভাইরাস লাইভ

আরও সংবাদ

করোনা ভাইরাস লাইভ ›

লাইভ অনুষ্ঠান বুলেটিন ছবি ভিডিও টিভি আর্কাইভ
বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
সর্বশেষ সংবাদ
অনুসদ্ধান
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop