খেলার সময় মৌসুমের বাকি ম্যাচগুলো বার্নাব্যুতে খেলতে পারছে না রিয়াল

০১-০৬-২০২০, ০৩:১২

খেলার সময় ডেস্ক

fb tw
মৌসুমের বাকি ম্যাচগুলো বার্নাব্যুতে খেলতে পারছে না রিয়াল
খেলা বন্ধ থাকায় সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে চলছে সংস্কার কাজ। তাই মৌসুমের বাকি ম্যাচগুলো ডি-স্টেফানো স্টেডিয়ামে খেলবে রিয়াল মাদ্রিদ। অক্টোবরের মধ্যে সংস্কার কাজ শেষ করার লক্ষ্য স্প্যানিশ ক্লাবটির। এদিকে, প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচে মাঠে নামতে উদগ্রীব ফুটবলাররা। দ্রুতই মানিয়ে নিয়ে, খেলায় ফিরতে চান রিয়াল মাদ্রিদ ডিফেন্ডার মার্সেলো। অন্যদিকে, শিরোপা জিততে উন্মুখ হয়ে আছে টেবিল টপার বার্সেলোনা।
সম্ভ্রান্ত সান্তিয়াগো বার্নাব্যু এখন যেনো ধ্বংসস্তূপ। খেলা নেই। বিশ্রামের বিরল সুযোগ পেয়েছে রিয়াল মাদ্রিদের হোম গ্রাউন্ড। এই সুযোগে স্টেডিয়ামের সংস্কার কাজ সেরে নিচ্ছে ক্লাব কর্তৃপক্ষ।
১১ জুন শুরু হতে যাচ্ছে লা লিগার অবশিষ্টাংশ। আপাতত গ্যালাকটিকোদের ঠিকানা ডি স্টেফানো স্টেডিয়াম। স্পেন সরকার এরইমধ্যে পূর্ণাঙ্গরূপে দলীয় অনুশীলনের অনুমতি দেয়ায় আরো নির্ভার মাদ্রিদিস্তারা। সোমবার থেকে ট্রেনিং গ্রাউন্ডে আরো স্বতঃস্ফূর্ত থাকতে পারবেন বেল-বেনজেমা-মদ্রিচ-র‌্যামোসরা। মৌসুমের বাকি আরো ১১ রাউন্ড। বার্নাব্যুতে সংস্কার কাজ চলায় এই ভেন্যুতেই বাকি ম্যাচগুলো খেলবে লস ব্ল্যাঙ্কোরা। অক্টোবরে নতুন চেহারায় আবির্ভূত হবে বার্নাব্যু।
শীর্ষদল বার্সেলোনার চেয়ে মাত্র ২ পয়েন্ট পিছিয়ে টেবিলের দুইয়ে রিয়াল। বার্সাকে টপকে লা লিগার শিরোপা পুনরুদ্ধারে ছক কষছে জিদান বাহিনী। তবে, আপাতত প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচের আবহটা খুঁজে ফিরছে সবাই।
মার্সেলো ভিয়েরা, ফুটবলার, রিয়াল মাদ্রিদ দীর্ঘ সময় ধরে ফুটবল খেলা হচ্ছে না। খুব শিগগিরই আবারো মাঠে গড়াতে যাচ্ছে ফুটবল। আমার তর সইছে না। উদগ্রীব হয়ে আছি মাঠে নামার জন্য। স্বাস্থ্যবিধি মেনে অনুশীলন এবং খেলা অনুষ্ঠিত হবার যে নিয়ম করা হয়েছে সেটি আমাদের জন্য নতুন অভিজ্ঞতা। আশা করছি নতুন এই নিয়ম মানিয়ে নিতে পারবো আমরা।
লিগ রেইসে অবশ্য কাতালানরাও সহজে ছাড়ার পাত্র নয়। ট্রেনিংয়েও পায়ের জাদু অব্যাহত রেখেছেন লিওনেল মেসি। সতীর্থ লুইস সুয়ারেজের শিরোপার ক্ষুধা মেটেনি এতো বছরেও। সম্ভাব্য সবকিছু জিততে চান উরুগুইয়ান তারকা।
সুয়ারেজ উচ্চাকাঙ্ক্ষী। আর্তুরো ভিদাল সাবধানী। তার মতে, বাকি ১১ ম্যাচই ফাইনালের মতো। ঘাড়ে নিঃশ্বাস ফেলছে রিয়াল মাদ্রিদ। হোঁচট খেলেই শীর্ষ আসন হবে দখল।
দর্শকবিহীন হবে সব খেলা। ভেবেই একটা শূন্যতা কাজ করে ফুটবলারদের মাঝে। তবুও শো মাস্ট গো অন। এটাই যে প্রকৃতির নিয়ম। পেশাদার খেলোয়াড়রা তা ভালোই জানেন।

করোনা ভাইরাস লাইভ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
সর্বশেষ সংবাদ

করোনা ভাইরাস লাইভ

আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি আর্কাইভ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop