বাংলার সময় চেয়ারম্যানের ‘সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের’ প্রতিবাদ করায় কুপিয়ে জখম

১৬-০৫-২০২০, ২০:৪৪

সময় সংবাদ

fb tw
চেয়ারম্যানের ‘সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের’ প্রতিবাদ করায় কুপিয়ে জখম
পাবনার আতাইকুলা ইউপি চেয়ারম্যান ও তার ক্যাডারদের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের প্রতিবাদ করায় এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে জখমের অভিযোগ পাওয়া গেছে। আহত রফিকুল ইসলাম রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। শনিবার (১৬ মে) সকালে পীরপুর গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।
প্রত্যক্ষদর্শী ও এলাকাবাসীর বরাত দিয়ে আতাইকুলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাসিরুল আলম জানান, আতাইকুলা ইউপি চেয়ারম্যান খন্দকার আতিয়ার হোসেনের সঙ্গে তার পীরপুর গ্রামের বাসিন্দা আহত রফিকুল ইসলামের ভাতিজা শওকত হোসেন খানের বিরোধ চলে আসছে।
সম্প্রতি আগামী ইউপি নির্বাচনে ওই ইউনিয়নে চেয়ারম্যান প্রার্থী ঘোষণা দেয়ায় এ বিরোধ শুরু হয়েছে। গত কয়েকদিন ধরে বাড়ির পাশের মালিকানাধীন জমির উপর দিয়ে রাস্তা তৈরিকে কেন্দ্র করে উভয় গ্রুপের মধ্যে ঝামেলার সৃষ্টি হয়। এর জের ধরে ইউপি চেয়ারম্যান খন্দকার আতিয়ার হোসেন ও ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি মাহমুদ খান আলী এবং তার অনুসারীরা শনিবার সকালে দলবলে নিয়ে তাদের ওপর হামলা চালায়।
এ সময় শওকত হোসেন খান এর চাচা রফিকুল ইসলামের ডান হাতে একটি কোপ লাগে। প্রথমে তাকে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হলে সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। 
হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রফিকুল ইসলামের ছেলে রকিবুল ইসলাম বলেন, আমার বাবা একজন সহজ সরল লোক। কোনো ধরনের ঝামেলা বোঝেন না। অথচ আমার বাবাকে হত্যার জন্য কুপিয়ে জখম করেন। আমি এই ঘটনার সুষ্ঠু বিচার দাবি করছি। থানায় মামলা করবেন বলেও জানান তিনি। 
ওই এলাকার শওকত হোসেন খান বলেন, সম্প্রতি এলাকায় মুরব্বিরা আমাকে আগামী ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান করার জন্য মনস্থির করায় আতিয়ার চেয়ারম্যান ক্ষুব্ধ হয়েছেন। তিনি স্থানীয় ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি মাহমুদ খান আলীসহ একটি সশস্ত্র দলের সিন্ডিকেট গড়েছেন। তাদের কথার বাইরে গেলেই মারপিট করা হয়। সম্প্রতি চেয়ারম্যান ব্যক্তি মালিকানাধীন একটি জমির উপর দিয়ে রাস্তা তৈরি করলে এলাকাবাসী ক্ষুব্ধ হয়ে তাদের বিরুদ্ধে অবস্থান নেয়। এরই ধারাবাহিকতায় চেয়ারম্যান ও তার সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা শনিবার সকালে আমার চাচাকে হত্যার উদ্দেশ্যে কুপিয়ে জখম করেন। এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচারও দাবি করেন তিনি।
এ বিষয়ে আতাইকুলা ইউপি চেয়ারম্যান আতিয়ার হোসেন বলেন, ঝামেলার সময় আমি ঘটনাস্থলে গিয়ে ঠেকানোর চেষ্টা করেছি মাত্র। এতেই আমার দোষ দিচ্ছেন। এই ঘটনার সাথে আমি জড়িত নই বলেও দাবি করেন তিনি।

করোনা ভাইরাস লাইভ

আরও সংবাদ

করোনা ভাইরাস লাইভ ›

লাইভ অনুষ্ঠান বুলেটিন ছবি ভিডিও টিভি আর্কাইভ
বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
সর্বশেষ সংবাদ
অনুসদ্ধান
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop