পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যপালের ১৪ পাতার চিঠির উত্তরে ১৩ পাতার চিঠি মমতার

০৩-০৫-২০২০, ১১:৪৮

কলকাতা ব্যুরো

fb tw
রাজ্যপালের ১৪ পাতার চিঠির উত্তরে ১৩ পাতার চিঠি মমতার
করোনা মহামারীর আবহের মধ্যে আবারো পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও রাজ্যপালের মধ্যে দ্বন্দ্ব চরমে পৌঁছেছে।
গত মাসেই চিঠি চালাচালির মাধ্যমে বেশ উত্তপ্ত পশ্চিবঙ্গের রাজনীতি। সেই রেশ না কাটতেই করোনা নিয়ে আবার মুখোমুখি হন তারা।
এনডিটিভি জানিয়েছে, গত ২৩ এপ্রিল ১৪ পাতার যে দুটি চিঠি রাজ্যপাল পাঠিয়েছিলেন। 
গতকাল শনিবার ১৩ পাতার পাল্টা চিঠি পাঠিয়ে তার জবাব দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এতে রাজ্যপালকে তার ‘সাংবিধানিক সীমাবদ্ধতার কথা বারবার মনে করানোর চেষ্টা করেছেন তিনি।
সম্প্রতি রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের পাঠানো চিঠির ভাষা প্রয়োগ নিয়ে আপত্তি করেন মমতা।
মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় চিঠিতে বলেছেন, রাজ্যপাল যে ভাষায় আমাকে এবং আমার মন্ত্রীদের সমালোচনা করেছেন তা নজিরবিহীন। রাজ্যপালের ভাষা প্রয়োগ নিয়ে প্রতিবাদ জানালাম। সেই চিঠি পেয়ে আমার রাগের চেয়ে কষ্ট বেশি হয়েছে।
তিনি আরও লিখেছেন, রাজ্যপালের এই ভাষা ব্যবহার একেবারেই কাম্য নয়, রাজ্যপালের কাছে সহযোগিতা কামনা করি। এই ভাষা অন্যান্য মন্ত্রীর কাছেও যে অপমানজনক তাও চিঠিতে উল্লেখ করেছেন মমতা।
অন্যদিকে মুখ্যমন্ত্রীর এই পাল্টা চিঠি রাজভবনে পৌঁছানো মাত্রই টুইট করে তাকে পাল্টা উত্তর দিয়েছেন রাজ্যপাল। মুখ্যমন্ত্রীর চিঠির কোনো সারবত্তা নেই বলেই মত ধনখড়ের।
অথচ টুইটে রাজ্যপাল কার্যত মুখ্যমন্ত্রীর সুরেই লিখেছেন, সংঘাতের সময় নয়; এটি হাতে হাত ধরেই পরিস্থিতি মোকাবেলার সময়।
কয়েক মাস আগে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে রাজ্যপাল জগদীপ ধনকরের দ্বন্দ্ব রীতিমতো ব্যক্তিগত পর্যায়ে দাঁড়িয়েছিল। কিছু দিন ভাটা পড়ার পর করোনার কারণে আবার সেই দ্বন্দ্ব মাথা চাড়া দিয়েছে।
পরিস্থিতি এত গুরুতর হয়েছে যে, চিঠি চালাচালির মাধ্যমে দুজন-দুজনকে চরম অপমান করতেও ছাড়ছেন না।
গত মাসের শেষ দিক থেকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের মধ্যে পত্রযুদ্ধ শুরু হয়। সরকারি কাজে নাক গলানো নিয়ে প্রথমে রাজ্যপালকে পাঁচ পাতার কড়া চিঠি পাঠান মুখ্যমন্ত্রী।
ধনখড়ের বিরুদ্ধে সাংবিধানিক শিষ্টতার গণ্ডি ছাড়ানোর পাশাপাশি, তার সরকারের মন্ত্রী-আমলাদের আক্রমণ এবং রাজ্যের প্রশাসনিক কাজে হস্তক্ষেপের অভিযোগ তোলেন মুখ্যমন্ত্রী।
২৩ ও ২৪ এপ্রিল পাল্টা মুখ্যমন্ত্রীকে ২ ও ১৪ পাতার দু’টি চিঠি লেখেন রাজ্যপাল। তার পর থেকে টুইটারেও লাগাতার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারকে আক্রমণ করে আসছিলেন তিনি। এর মধ্যেই তাকে এ পাল্টা চিঠি লেখেন মুখ্যমন্ত্রী।

করোনা ভাইরাস লাইভ

আরও সংবাদ

stay home stay safe
বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
এক্সক্লুসিভ লাইভ
বিপিএল ২০২০

করোনা ভাইরাস লাইভ

আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি আর্কাইভ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop