ভাইরাল করোনা নিয়ে যে ভুলের কারণে হাত কামড়াচ্ছে স্পেন

১৯-০৩-২০২০, ১৭:১৪

মহানগর সময় ডেস্ক

fb tw
করোনা নিয়ে যে ভুলের কারণে হাত কামড়াচ্ছে স্পেন
করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার পর থেকে যেমন নির্ভরযোগ্য বিশেষজ্ঞ পরামর্শ আসছে, তেমনি আক্রান্ত দেশগুলোতে থাকা প্রবাসীরা বিভিন্ন সময় তাদের দুঃসহ অভিজ্ঞতার কথা জানাচ্ছেন, জানাচ্ছেন তাদের কোয়ারেন্টাইন থাকার দিনগুলোর কথা। 
স্পেনের বাংলাদেশ দূতাবাসের সেকেন্ড সেক্রেটারি চিকিৎসক তাহসিনা আফরিন ফেসবুকে একটি পোস্টের মাধ্যমে জানিয়েছেন কেন স্পেনে করোনা আক্রান্তে সংখ্যা দ্রুত গতিতে বৃদ্ধি পেল, কেন বাড়াল মৃত্যুর সংখ্যা।
তার স্ট্যাটাসে তিনি বলেছেন, স্পেন হল ইউরোপের উষ্ণতর, আলোকোজ্জ্বল দেশ। রোদে খটখট করে সারা বছর। মরুভূমির মত ভূপ্রকৃতি। লোকজনের আয়ুস্কাল দীর্ঘ। ৯০ শতাংশ দেশবাসী সুস্থ খায়, সুস্থ চলে। সুস্থ থাকে। এ সময়ে করোনা নিয়ে মাতামাতি করতে কারোই ভালো লাগছিল না। করোনা যখন ইতালিতে বিষবাষ্প ছাড়ছে তখনো স্পেন ছিল নির্বিকার। কিন্তু এখন মৃত্যুর মিছিল যখন প্রতিদিন লম্বা হচ্ছে হাত কামড়াচ্ছে সরকার। ভাবছে আর একটা সপ্তাহ আগে যদি সবাইকে ঘরে ঢুকাতে পারতাম। যেমন, চীন রুখেছে, সাউথ কোরিয়া, সিংগাপুর রুখেছে।
সময় সংবাদের পাঠকদের জন্য স্পেনের বাংলাদেশ দূতাবাসের সেকেন্ড সেক্রেটারি চিকিৎসক তাহসিনা আফরিনের পোস্টটি হুবহু তুলে ধরা হলো:
“করোনা না গরম মানে, না সুস্থ শরির মানে, না নারী শিশু মানে!! করোনা কোন করুনা করছে না, বিদ্যুৎ বেগে ছড়াচ্ছে, যাকে বাগে পাচ্ছে আইসিইউ অবদি টেনে নিয়ে মেরে ফেলছে!”
stay home stay safe
‘... আমাদের হাতে তিন মাসের লম্বা সময় ছিল। যা আমরা হেলায় হারাচ্ছি, এবং সে সময়ে তাসের ঘরের মত থুবড়ে পড়বে স্বাভাবিক প্রতিরোধ টুকুও। বিপদের আন্দাজাও করতে পারছি না, এত ভয়াবহ হবে সেটা!!
স্পেইন হল ইউরোপের উষ্ণতর, আলোকোজ্জ্বল দেশ। রোদে খটখট সারা বছর। মরুভূমির মত ভূপ্রকৃতি। লোকজনের আয়ুস্কাল দীর্ঘ। জ্যাপানিদের পরেই স্পেইনের গড় আয়ু। ৯০% দেশবাসি সুস্থ খায়, সুস্থ চলে। সুস্থ থাকে।
সামনেই সামার। পর্যটন নির্ভর সুন্দর দেশটির রুটি রুজির অন্যতম সময়। এ সময়ে করোনা নিয়ে মাতামাতি করতে কারোই ভালো লাগছিল না।
করোনা যখন ইতালিতে বিষবাষ্প ছাড়ছে তখনো স্পেইন ছিল নির্বিকার!! অথচ করোনা হাটিহাটি পা পা করে সপ্তাহ খানেকের মধ্যেই হানা দিলো রাজধানি মাদ্রিদে!!
কর্তারা তখনো শাক দিয়ে মাছ ঢাকছেন!! সেরে যাবে! চলে যাবে! ছুহ ছুহ করছেন!
এখন মরার পর কেউ ছুঁতে পারছে না।। দেখতে পারছে না। মরার বুকে আছরে পরে কাঁদতে পারছে না।। জানাজায় লোক হচ্ছে না, ফিউনারেল হচ্ছে না। দাফন হচ্ছে না। সরাসরি ক্রিমেশনে পুড়িয়ে ফেলছে!!
সেই স্পেইন থেকে বলছি।
আজ পাঁচদিন হয় জরুরি অবস্থা ঘোষনা করা হয়েছে। রাস্তায় সেনা ও পুলিশ ঘুরছে। আপনি কেবল তিন কাজের জন্য বের হতে পারবেন!!
খাদ্য কেনা বা
ওষুধ কেনা বা
গ্রেফতার হবার শখ হওয়া!
জরিমানা গুনবেন ২০০ ইউরো, যদি কোয়ারাইন্টাইনের নিয়ম না মানেন। খোলা আছে শুধু ব্যাংক, মুদি দোকান আর ফার্মেসি। বাকিরা সিল গালা তালা।
সকল সরকারি তো বটেই, বেসরকারি হাসপাতাল ক্লিনিক নেয়া হয়েছে সরকারের আওতায়। সব নিয়ন্ত্রন সরকারের। সকল ইন্টার্ন এর মেয়াদ বাড়ানো হয়েছে। যে কোন ডিসিপ্লিনের চিকিৎসক হলেই প্রস্তুত করা হচ্ছে করোনা সৈনিক হিসেবে!! শেষ বর্ষের ছাত্র ছাত্রীদের যুক্ত করা হচ্ছে চিকিৎসক কাতারে! এরপর যুদ্ধ চলছে। হাসপাতালে হাসপাতালে। তবুও কমছে না মৃত্যু মিছিল।
হাত কামড়াচ্ছে সরকার, দূয়ো দিচ্ছে একে অন্যকে!! আহা! আর একটা সপ্তাহ! আর দিন দশেক আগেও যদি সবাইকে খেদিয়ে ঘরে ঢুকাতাম, তো এই দাবানল রুখে দেয়া যেত!!
যেমন, চায়না রুখেছে, সাউথ কোরিয়া, সিংগাপুর রুখেছে।
বাংলাদেশ ভালো থাকুক, সেটা কে না চায়! আমার সর্বস্ব সেখানেই। মরার পরের ঠিকানা সেটা। দেশ থেকে আমার কথা ভেবে ফোন আসলে অসহায় লাগে! আমি ভাবছি তাদের নিয়ে, তারা ভাবে আমাকে নিয়ে!!”
Dr. Tahsina Afrin
CMC 46, 2003/2004
Second Secretary
Embassy of Bangladesh
Madrid, Spain

করোনা ভাইরাস লাইভ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
এক্সক্লুসিভ লাইভ
বিপিএল ২০২০

করোনা ভাইরাস লাইভ

আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি আর্কাইভ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop