সাক্ষাৎকার ১৭ বছর ধরে লোকসানে আছি, সাক্ষাৎকারে আসিফ

০৫-০৩-২০২০, ২১:৪৯

বিনোদন সময় ডেস্ক

fb tw
প্রেমিকাকে হারানোর দুঃখে গাওয়া একটি গান ২০০১ সালে এক অচেনা যুবককে পৌঁছে দিয়েছিল বাংলাদেশের ঘরে ঘরে। আর তারপর থেকেই বাংলাদেশের সঙ্গীতাঙ্গনে আসিফ আকবর একটি জনপ্রিয় নাম। সম্প্রতি সময় সংবাদের সাথে একান্ত আলাপচারিতায় তিনি নিজের সুখ-দুঃখের অনেক কথাই বলেছেন অকপটে।
ইথুন বাবুর সাথে গ্যাপ হওয়ার কারণ কি? এমন প্রশ্নের উত্তরে আসিফ বলেন, প্রডাকশন হাউজ যা বলে সেটা আমাদের করতে হয়। একটা মনস্তাত্ত্বিক দ্বন্দ্বও ছিল। পরবর্তীতে দেখলাম বাবু ভাইও একসাথে কাজ করতে চাইছেন, আমিও চাইছি। এমন না যে কোনো তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ লেগে গেছে। এখন শান্তিপূর্ণ অবস্থানে আছি আমরা। 
গহীনের গান সিনেমার মধ্য দিয়ে অভিনয়ে অভিষেক হয়েছে তার। প্রশ্ন ছিল বাস্তব জীবনে কেমন অভিনয় করেন তিনি? 
আসিফ আকবর (হেসে) বলেন, আমি স্ট্রেটকাট। সোজা চলি। আমি অভিনয় সহ্যও করতে পারি না, করতেও পারি না। 
তার রাজনৈতিক জীবন সম্পর্কে সময় সংবাদকে তিনি বলেন, আমি বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের একজন সমর্থক। সেই হিসেবেই আছি। আমি আমার দলকে ভালোবাসি। বেগম জিয়ার মুক্তি চাই অবিলম্বে। আসলে দেশের জন্য যদি কিছু করতে চাই, তাহলে রাজনৈতিক দল ছাড়া কোনো প্ল্যাটফর্ম থাকে না। 
stay home stay safe
জানতে চাওয়া হয়, রাজনীতি তার সঙ্গীত জীবন, অভিনয় জীবনকে কোনোভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে কিনা। তিনি বলেন, আমি হলাম আগ্নেয়গিরি, লাভা নির্গত করার সময় কাউকে জিজ্ঞেস করি না। আপনি যত আমাকে প্যাঁচাবেন, আমিও ততই প্যাঁচাতে থাকবো। বাংলাদেশে রাজনৈতিক পরিবেশটা এখন নাই। আমরা যেটা করতে চাই, তরুণ প্রজন্ম, নাক সিটকানো প্রজন্ম- যারা বলে, বাংলা ছবি দেখি না, রাজনীতি বুঝি না, তাদের বলি, কি করতে ভালো লাগে তোমার, মায়ের আঁচলের তলে বসে থাকলে হবে না, আবার খামাখা রাজপথে গিয়ে হইচই করলেও হবে না। পলিসি থাকতে হবে, যে নিজের উন্নয়ন বাদ দিয়ে কিসে দেশের মানুষের উন্নয়ন হবে। 
তিনি আরো বলেন, রাজনীতির কারণে অবশ্য আমার ক্যারিয়ারে ক্ষতি হয়েছে। ২০০১ থেকে ২০০৫ সালে বিএনপি আমলে আমি কোনো জাতীয় পুরস্কার পাইনি। এবং সবসময় ফ্রি গান করতে হতো তখন আমাকে। আর তত্ত্বাবধায়ক সরকার আর আওয়ামী লীগের আমলে আমার শো করা বন্ধ হয়ে গেছে। আমি আসলে গত ১৭ বছর ধরে শুধু লুজার আর লুজার। তারপরও আমাকে দমিয়ে রাখা মুশকিল। কোনো রকম তত্ত্ব বা থিওরি আমাকে আটকে রাখতে পারবে না। জেলেও যেতে হয়েছে বিনা কারণে।
‘সাবাস বাংলাদেশ’- ক্রিকেটের এই গানটি নিয়ে কি বলবেন- এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, কোন মানসিকতার লোক বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডে আছে আমি জানি না, তারা একটা গানকে নিয়েও রাজনীতির সাথে মিলিয়ে ফেলেছে। এই গানটাও নিষিদ্ধ। এটা মানসিকতার ব্যাপার আসলে, আপনি দৈন্য মানসিকতা নিয়ে রাজনীতি করছেন, সেটা আমার মাথাব্যথা নয়, আমি কোন মানসিকতা নিয়ে রাজনীতি করছি, সেটা আমি নিজে বুঝছি, আপনারা না বুঝলেও হবে।
বিপিএল এবং টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট নিয়ে কি বলবেন- এই প্রশ্নে তিনি বলেন, আমি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ কখনোই পছন্দ করি না, জুয়াড়িদের স্বর্গরাজ্য ওখানে। যখন বরিশাল বুলস্ করতাম মুশফিক রেগে গেছে আমার সাথে, পাগল-টাগল বলেছে আমাকে, আমি আসলে এমনই, যেটা সত্যি সেটা বলি, কারো ভালো লাগলে লাগবে, না লাগলে না লাগবে।

করোনা ভাইরাস লাইভ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
এক্সক্লুসিভ লাইভ
বিপিএল ২০২০

করোনা ভাইরাস লাইভ

আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি আর্কাইভ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop