মহানগর সময় চসিক নির্বাচনের মাঠে ১৪ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট

০৪-০৩-২০২০, ১০:১৭

কমল দে

fb tw
চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ‘লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড’ তৈরিতে এবার আগে ভাগেই মাঠে নেমেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। ১৪ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে ১৪টি টিম সকাল থেকে রাত পর্যন্ত নির্বাচনী এলাকায় ঘুরে প্রার্থীদের আচরণবিধি পর্যবেক্ষণ করছেন। এছাড়া প্রতিপক্ষের কোনো হুমকি রয়েছে কি না তাও নজরদারি করছেন তারা। তবে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটদের স্বাধীনভাবে কাজ করা নিয়ে সন্দিহান সুশীল সমাজ।
চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের ডামাডোল শুরু হলেও আনুষ্ঠানিক প্রচারণা শুরু হতে আরো ৪ দিন বাকি। অধিকাংশ ওয়ার্ডে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী থাকায় উত্তেজনার পারদ এখন থেকে উপরের দিকে উঠতে শুরু করেছে। তাই নির্বাচনী পরিবেশ শান্ত রাখতে মাঠে নেমে গেছেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটদের নেতৃত্বে ১৪টি ভ্রাম্যমাণ আদালত। নগরীতে ৪১টি ওয়ার্ড থাকলেও ১৪টি সংরক্ষিত ওয়ার্ড অনুযায়ী ভ্রাম্যমাণ আদালত কাজ করছে।
চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন অতিরিক্ত রিটার্নিং অফিসার মোহাম্মদ মুনীর হোসাইন খান বলেন, ওনাদের নির্বাচনী আচরণ বিধি দেয়া হয়েছে। আচরণবিধির বাইরে গেলেই ভ্রাম্যমাণ আদালত বিষয়টি দেখবেন।
প্রথম পর্যায়ে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটরা প্রতীক বরাদ্দের আগেই বিভিন্ন স্থানে লাগানো প্রার্থীদের শুভেচ্ছামূলক পোস্টার-ব্যানার ফেস্টুন অপসারণ করছেন। একই সঙ্গে অন্যান্য আচরণবিধি লঙ্ঘনের ঘটনাও তদন্ত করছেন নির্বাহী মাজিস্ট্রেটরা। প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের একে-অপরের প্রতি হুমকি-ধামকিও তদারকি করছেন তারা।
চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তৌহিদুল ইসলাম বলেন, লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরির জন্য যথাযথ কাজ করতে ১৪ জন আমরা মাঠে নেমেছি।
চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবদুস সামাদ সিকদার বলেন, কেউ কাউকে হুমকিধামকি দিচ্ছে কিনা সে বিষয়গুলো খতিয়ে দেখছি। অভিযোগ পেলেই সেটিকে আমলে নিয়ে তদন্ত করছি।
তবে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটরা নির্বাচন কমিশনের পরিবর্তে জেলা প্রশাসনের অধীন হওয়ায় স্বাধীনভাবে কাজ করা নিয়ে সন্দেহ রয়েছে সুশীল সমাজের।
টিআইবির কেন্দ্রীয় পর্ষদ ট্রাস্টি সদস্য প্রকৌশলী দেলোয়ার হোসেন মজুমদার বলেন, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নির্বাচনের সময় ইসির অধীনে কাজ করে। নির্বাচনের পরেই আবার সরকারের অধীনে চলে যেতে হয়। এই বিষয়টা চিন্তা করলেই যেটি দাঁড়ায় সেটি হলো এদের দিয়ে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড করানো যায় তা আমি মনে করি না।
৮ মার্চ মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন হলেও এখন পর্যন্ত মেয়র পদে ৭ জন, সাধারণ কাউন্সিলর পদে ১০৯ জন এবং সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ৫৮ জন নির্বাচনী লড়াইয়ে রয়েছেন।

করোনা ভাইরাস লাইভ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
এক্সক্লুসিভ লাইভ
বিপিএল ২০২০

করোনা ভাইরাস লাইভ

আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি আর্কাইভ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop