মহানগর সময় চসিক নির্বাচনে ভোটারদের কেন্দ্রে আনাই ইসির জন্য চ্যালেঞ্জ

০৩-০৩-২০২০, ০৯:৪১

কমল দে

fb tw
নানা অপপ্রচারের পাশাপাশি রাজনৈতিক জটিলতায় চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ভোটারদের ভোট কেন্দ্রে নেয়াই এখন নির্বাচন কমিশনের (ইসি) জন্য বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে।
ইলেকট্রনিক্স ভোটিং মেশিন (ইভিএম) নিয়ে নেতিবাচক প্রচারণা যেমন রয়েছে, তেমনি অনিয়ম ও অব্যবস্থাপনার কারণে ভোটাররা কেন্দ্রমুখী হচ্ছেন না। এ অবস্থায় ভোটারদের আস্থা ফেরাতে নির্বাচনের দিন সরকারি বন্ধ শিথিল করা, যানবাহন চলাচলের অনুমতি দেয়াসহ আরো বেশ কিছু ব্যবস্থা নিতে যাচ্ছে নির্বাচন কমিশন।
গত ১৩ জানুয়ারি চট্টগ্রাম-৮ উপনির্বাচনে ভোট পড়েছিলো মাত্র ২২ দশমিক ৯৪ শতাংশ। এরপর ১ ফেব্রুয়ারি একই অবস্থা ছিল ঢাকার দুটি সিটি করপোরেশন নির্বাচনে। উত্তরে ২৫ দশমিক ৩ শতাংশ এবং ঢাকা দক্ষিণে ২৯ শতাংশ ভোট পড়েছে। সবগুলোই ইভিএমের মাধ্যমে ভোটগ্রহণ হয়েছিলো। আসন্ন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনও সেই শঙ্কায় ভুগছে।
সনাকের সহ সভাপতি অধ্যক্ষ আনোয়ারা আলম বলেন, ভোটার যদি ভোট কেন্দ্রে না আসেন তাহলে নির্বাচনটা একমুখি হয়ে যাবে, আর নির্বাচনের আগে যে উৎসবমুখর পরিবেশ থাকে সেটা আর থাকবে না।   
ভোটকেন্দ্রে ভোটার না আসা নিয়ে রাজনৈতিক দলগুলোরও রয়েছে নানা ব্যাখ্যা। তবে সবচে আলোচিত বিষয় হলো ইভিএম। এ নিয়ে আওয়ামী লীগের অবস্থান পক্ষে, আর উল্টো ভাবনা বিএনপি'র। কিন্তু ভোটার আনা নিয়ে দু'দলের নেই কোনো সুস্পষ্ট দিক নির্দেশনা।
নগর আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট শেখ ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী বলেন, বিরোধীদল নির্বাচনকে সব সময় একটা নেগেটিভভাবে প্রচার করছে। এখন শান্তিপ্রিয় ভোটারা ভাবছেন কেন্দ্রে গেলে ঝামেলা হতে পারে। এই ভীতির কারণে ভোটাররা আসছেন না।   
নগর বিএনপির সহ সভাপতি নিয়াজ মোহাম্মদ খান বলেন, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী মামলার ভয় দেখিয়ে এবং মামলা আছে বলে তারা ঘরে ঘরে তল্লাশি চালাচ্ছে। এসব কারণে বিএনপি ভোটাররা কেন্দ্রে আসতে ভয় পাচ্ছেন।
এখানকার নির্বাচনের আগের তিনদিন থাকছে সরকারি বন্ধ। তাই ভোটার উপস্থিতির হার নিয়ে শঙ্কার সৃষ্টি হয়েছে।
এ অবস্থায় ভোট কেন্দ্রে ভোটার খরা কাটাতে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ভোটারদের মাঝে শোডাউন করার মতো বেশ কিছু পদক্ষেপ নিতে যাচ্ছে  বলেন জানান নির্বাচনের অতিরিক্ত রিটার্নিং অফিসার মুনীর হোসাইন খান।
আগামী ২৯ মার্চ চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনও হবে ইভিএমের মাধ্যমে। আর ৪১টি ওয়ার্ডের ৭৩৫টি ভোট কেন্দ্রে রয়েছেন প্রায় ২০ লাখ ভোটার।

করোনা ভাইরাস লাইভ

আরও সংবাদ

stay home stay safe
বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
এক্সক্লুসিভ লাইভ
বিপিএল ২০২০

করোনা ভাইরাস লাইভ

আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি আর্কাইভ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop