বাংলার সময় মাদ্রাসাছাত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার, আটক ৪

২৫-০২-২০২০, ২২:০৩

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি

fb tw
মাদ্রাসাছাত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার, আটক ৪
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার সলিমগঞ্জ জান্নাতুল ফেরদৌস মহিলা মাদ্রাসার হোস্টেলের থেকে আছমা আক্তার আমেনা (১১) নামে এক ছাত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) রাতে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। সে ওই মাদ্রাসার ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী। ঘটনার পর এলাকাবাসী হত্যাকাণ্ড দাবি করে বিক্ষোভ করেন। 
পরে ঘটনায় জড়িত থাকার সন্দেহে মাদ্রাসার অধ্যক্ষ গোলাম মোস্তফা সহ ৪ জন সহকারী শিক্ষককে আটক করেছে পুলিশ। 
পুলিশ, এলাকাবাসী ও পরিবার সূত্রে জানাযায়, নিহত আমেনা পাশ্ববর্তী বাঞ্ছারামপুর উপজেলার ছয়ফুল্লাকান্দি ইউনিয়নের কাঞ্চনপুর গ্রামের প্রবাসী মুমিনুল হকের মেয়ে। সে তৃতীয় শ্রেণিতে ভর্তি হয়ে মাদ্রাসার হোস্টেলে থাকতো। দুপুরের খাবারের পর বিকেলে ঘুমানোর কথা ছিল আমেনার। ওই সময় রুমে না থাকায় তার সহপাঠীরা তাকে খুঁজতে সিঁড়ির রুমে যায়। এ সময় তার ঝুলন্ত মরদেহ দেখতে পেয়ে চিৎকার শুরু করে। পরে এলাকাবাসী এগিয়ে যায়। খবর পেয়ে পুলিশ এসে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। 
স্থানীয়দের অভিযোগ, তাকে ধর্ষণের পর হত্যা করে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে। এই ঘটনায় রাতেই বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী ছাত্রীদের নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থতার জন্য মাদ্রাসার অধ্যক্ষ গোলাম মোস্তফাকে দায়ী করে তার বিরুদ্ধে মিছিল করেন এবং সুষ্ঠু তদেন্তর মাধ্যমে দায়ীদের চিহ্নিত করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেন।
এদিকে ঘটনা জানাজানি হওয়ার পর অন্যান্য অভিভাবকরা তড়িঘড়ি করে তাদের সন্তানদের রাতেই মাদ্রাসার হোস্টেল থেকে বাড়িতে নিয়ে যায়। এর পর থেকে মাদ্রাসাটি বন্ধ রয়েছে।
stay home stay safe
এদিকে ঘটনার পর নিহত শিক্ষার্থী আমেনার মা সেলিনা বেগম বাদী হয়ে মঙ্গলবার (২৫ পেব্রুয়ারি) ৬ জনকে আসামি করে নবীনগর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। ওই মালায় এজাহার ভুক্ত প্রধান আসামি অধ্যক্ষ মাওলানা গোলাম মোস্তফা, আল আমিন, আনোয়ার হোসেন,হাফেজ ইউনুস মিয়া সহ ৪ জন সহকারী শিক্ষককে গ্রেফতার দেখিয়ে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়।
নিহতের মা সেলিনা বেগম অভিযোগ করে বলেন, আমার মেয়ে আমেনা ফাঁসি দেয়নি, হত্যা করে তাকে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে। ঘটনার বর্ণনা দিতে গিয়ে তিনি কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন।
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে এ ব্যাপারে নবীনগর থানার ওসি রনোজিত রায় বলেন, সোমবার সন্ধ্যায় সংবাদ পেয়ে পুলিশ ঘটনা স্থলে পৌঁছে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে। মঙ্গলবার সকালে ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ জেলা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। বাদীর অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত চলছে, ময়নাতদন্তের রিপোর্ট আসলে বলা যাবে এটি হত্যা না আত্মহত্যা। এরপর পরে আইনানুগ ব্যবস্থাগ্রহণ করা হবে।

করোনা ভাইরাস লাইভ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
এক্সক্লুসিভ লাইভ
বিপিএল ২০২০

করোনা ভাইরাস লাইভ

আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি আর্কাইভ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop