ধর্ম এবার হজের তিন প্যাকেজে যা থাকছে

২৪-০২-২০২০, ১৭:৪০

মহানগর সময় ডেস্ক

fb tw
এ বছর সরকারি ব্যবস্থাপনায় তিনটি প্যাকেজের মাধ্যমে হজে যাওয়া সুযোগ রাখা হয়েছে। সোমবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠকে হজ প্যাকেজ অনুমোদন দেয়া হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন। 
বৈঠক শেষে সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান, প্যাকেজ-১-এ ব্যয় ধরা হয়েছে ৪ লাখ ২৫ হাজার টাকা, যা গত বছর ছিল ৪ লাখ ১৮ হাজার ৫০০ টাকা। প্যাকেজ-২-এ ৩ লাখ ৬০ হাজার টাকা, গেল বছর ছিল ৩ লাখ ৪৪ হাজার টাকা। আর নতুন প্যাকেজ-৩-এর ব্যয় ধরা হয়েছে ৩ লাখ ১৫ হাজার টাকা।
আগে দুটি প্যাকেজের মাধ্যমে হজে যাওয়া যেতো। গতবারের চেয়ে এবার আরো একটি প্যাকেজ বাড়ানো হয়েছে হজ যাত্রীদের জন্য। 
গত হজের তুলনায় প্যাকেজ-১ এ খরচ বেড়েছে ৬ হাজার ৫০০ টাকা ও প্যাকেজ-২ এ বেড়েছে ১৬ হাজার টাকা।
এই তিনটি প্যাকেজ অনুসরণ করে বেসরকারি ব্যবস্থাপনায়ও হজ এজেন্সিগুলোকে যাত্রী পরিবহন করতে হবে জানিয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, দূরত্বের উপর ভিত্তি করে এসব প্যাকেজ নির্ধারণ করা হয়েছে।
stay home stay safe
সৌদি আরবের সঙ্গে চুক্তি অনুযায়ী, এ বছর মোট হজযাত্রী ১ লাখ ৩৭ হাজার ১৯৮ জন। এরমধ্যে সরকারিভাবে হজ করতে যাবেন ১৭ হাজার ১৯৮ জন।
গত হজে প্যাকেজ-১ এর মাধ্যমে হজ পালনে খরচ হয় ৪ লাখ ১৮ হাজার ৫০০ টাকা। অপরদিকে প্যাকেজ-২ এর মাধ্যমে খরচ হয় ৩ লাখ ৪৪ হাজার টাকা। বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় এক লাখ ২০ হাজার জন হজে যাওয়ার সুযোগ পাবেন।
মন্ত্রিপরিষদ সচিব জানান, হজযাত্রীদের থাকা, খাওয়া, বিমানভাড়াসহ আনুষঙ্গিক সব খরচ ধরেই হজ প্যাকেজ ঘোষণা করা হয়েছে।
হজ প্যাকেজ -১ এর হজযাত্রীগণ পবিত্র মসজিদুল হারাম চত্বরের সীমানা থেকে সর্বোচ্চ ৭০০ মিটারের মধ্যে, প্যাকেজ-২ এর হজযাত্রীরা সর্বোচ্চ ১৫০০ মিটারের মধ্যে এবং প্যাকেজ-৩ এর হজযাত্রীরা ১৫০০ মিটারের বাইরে অবস্থান করবেন।
বেসরকারি ব্যবস্থাপনার হজ যাত্রীদের জন্য তিন লাখ ৫৭ হাজার টাকার প্যাকেজ রাখা হয়েছে জানিয়ে আনোয়ারুল বলেন, বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় হজ এজেন্সিগণ সরকারি প্যাকেজের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে একাধিক প্যাকেজ ঘোষণা করতে পারবেন
তিনি আরো বলেন, ‘বিমানের টিকেট বাবদ নেওয়া অর্থ হজ এজেন্সি ব্যাংক থেকে উঠাতে পারবে না। হজযাত্রীর সংখ্যা অনুযায়ী সরাসরি পে-অর্ডারের মাধ্যমে এয়ারলাইন্সকে পরিশোধ করতে হবে এবং সৌদি আরবের বিভিন্ন সার্ভিস চার্জ ও পরিবহন বাবদ নেওয়া অর্থ আইবিএএন (ইন্টারন্যাশনাল ব্যাংক অ্যাকাউন্ট নম্বর) এর মাধ্যমে সৌদি আরবে পাঠানো ছাড়া এজেন্সি তা উত্তোলন করতে পারবে না।’
তিনি জানান, প্রত্যেক এজেন্সি কমপক্ষে ১০০ জন সর্বোচ্চ ৩০০ জন হজযাত্রী পাঠাতে পারবে। প্রতি ৪৪ জন হজযাত্রীর জন্য একজন করে গাইড রাখতে হবে।
কোরবানির অর্থ ইসলামী ডেভেলপমেন্ট ব্যাংকের মাধ্যমে পরিশোধ করতে সৌদি সরকার পরামর্শ দিয়েছে। এজন্য প্যাকেজ মূল্যের অতিরিক্ত ৫২৫ সৌদি রিয়ালের সমপরিমাণ অর্থাৎ ১২ হাজার ৭৫ টাকা সঙ্গে নিতে হবে।
বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস ও সৌদি এয়ারলাইনসের মাধ্যমে হজযাত্রী পরিবহন করা হবে। তবে আরেকটি কোম্পানি যুক্ত করার চিন্তা করা হচ্ছে।

করোনা ভাইরাস লাইভ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
এক্সক্লুসিভ লাইভ
বিপিএল ২০২০

করোনা ভাইরাস লাইভ

আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি আর্কাইভ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop