লাইফস্টাইলওজন কমাবে ডিটক্স ওয়াটার, তৈরিও সহজ

১৩-০২-২০২০, ১৬:২৩

ওয়েব ডেস্ক

fb tw
ওজন কমাবে ডিটক্স ওয়াটার, তৈরিও সহজ
সঠিক ডায়েটিংয়ের পাশাপাশি ওজন কমানোর ক্ষেত্রে ম্যাজিক দেখাতে পারে ‘ডিটক্স ওয়াটার’। ডায়েট আর ফিটনেস নিয়ে যাদের আগ্রহ আছে, তারা ভালোমতোই জানেন যে এই মুহূর্তে গোটা বিশ্ব জুড়ে যে জাদু পানীয়টি নিয়ে দারুণ মাতামাতি হচ্ছে, তার নাম ‘ডিটক্স ওয়াটার’।
ওজন কমানো ছাড়াও এই পানীয়ের নিয়মিত সেবনে আপনার ত্বক হয়ে উঠবে ঝলমলে, ঢেকে যাবে বলিরেখা, পেট ফাঁপবে না, অ্যাসিডিটির সমস্যা থেকে মুক্তি পাবেন, কমে যাবে হজমের সমস্যা।
ডিটক্স ওয়াটার কি সত্যিই ওজন কমাতে পারে?
এ প্রশ্নের উত্তর একটাই, পারে। সত্যি বলতে কী, পানি খাওয়ার পরিমাণ বাড়িয়ে দেখুন, আপনার ওজন কমতে বাধ্য। 
আসলে আমাদের মস্তিষ্কে খিদে আর তেষ্টার বোধ নিয়ন্ত্রিত হয় খুব কাছাকাছি দু’টি অংশ থেকে। তাই অনেক সময়েই আমরা তেষ্টাকে খিদে বলে ভুল করে ফেলি। যে সময়টায় আসলে শরীরের এক গ্লাস পানি দরকার ছিল, সেই সময়েই হয়তো আপনি কোনও জাঙ্ক ফুড খেয়ে ফেললেন – এভাবেই ক্রমশ বাড়তে থাকে ওজন। তাই পুষ্টিবিদরা বলেন, পানি খাওয়ারও নির্দিষ্ট সময় থাকা দরকার। 
খাওয়ার এক ঘণ্টা আগে আর এক ঘণ্টা পরে পানি খাওয়ার সময় ধার্য করে রাখুন। ডিটক্স ওয়াটারের সঙ্গে বন্ধুত্ব পাতান। পানিও খাওয়া হবে, উপরি হিসেবে পাবেন ফলের পুষ্টি। মনে রাখবেন, পানিতে কিন্তু কোনও ক্যালোরি নেই, তাই যত ইচ্ছে পান করলেও ওজন বাড়বে না কিছুতেই।
যারা নিয়ম করে প্রতিদিন অন্ততপক্ষে ৩ লিটার পানি পান করেন, তারা এমনিতেই ত্বকের শুষ্কতা বা হজম সংক্রান্ত সমস্যায় কম ভোগেন। এর পাশাপাশি যেকোনো মানুষের পরম বন্ধু হয়ে উঠতে পারে ডিটক্স ওয়াটার। 
বিষয়টা তেমন জটিল কিছু নয়, মরশুমি ফলের কয়েকটি টুকরো ফেলে দিন কাচের জগ বা বোতলে, বোতলটা পুরো ভর্তি করে নিন পানি দিয়ে। ইচ্ছে হলে এর মধ্যে কিছু পুদিনা পাতাও ফেলে দিতে পারেন। পানিটা এবার ফ্রিজে রেখে দিন। সারারাত থাকলে ফলের ফ্লেভারটা পানিতে মিশে যাবে। তারপর পানিটা ছেঁকে পান করতে পারেন, ফলসমেত খেলেও কোনও সমস্যা নেই৷ ২-৩ দিনের মধ্যে এই পানিটা পুরো খেয়ে শেষ করে ফেলতে হবে।
কোন কোন ফল দিয়ে ডিটক্স ওয়াটার তৈরি করা যায়?
আপনার পছন্দের যে কোনও ফল দিয়েই করতে পারেন ডিটক্স ওয়াটার। তবে মরশুমি ফল দিয়ে করাই ভালো, কারণ তাতে অনেক বেশি পুষ্টিগুণ থাকে। কমলালেবু, ব্লুবেরি, স্ট্রবেরি, রাস্পবেরি, পাতিলেবু, আনারস, তরমুজ, আদা, পুদিনা, আপেল, কিউয়ি, আঙুর, শসা — যা ইচ্ছে ব্যবহার করতে পারেন, কোনও অসুবিধে নেই। তবের ফলের খোসা ছাড়ানো হয় না ডিটক্স ওয়াটার তৈরির সময়ে, তাই ব্যবহারের আগে অতি অবশ্যই খুব ভালো করে ধুয়ে নেবেন।
আঙুর, স্ট্রবেরি, ব্লুবেরি ইত্যাদি ছোট ফলগুলিকে একটু থেঁতলে দেবেন চামচ দিয়ে। তা হলে স্বাদটা জলের সঙ্গে মিশবে ভালোভাবে। আনারস বা তরমুজের ক্ষেত্রেও একই কথা খাটে। যারা ফ্রেশনেসের ভক্ত, তাদের ভালো লাগবে পুদিনার স্বাদ। তবে পুদিনার পাতা ছিঁড়ে বা থেঁতো করে দেবেন না। তা হলে পানি খাওয়ার সময় তা মুখে পড়বে। গোটা পুদিনার পাতাই যথেষ্ট। লেবু বা শসা ব্যবহার করার আগে সতর্ক হবেন, কারণ তা অনেক সময় তেতো হয় এবং সেই তিতকুটে ভাব পানিতেও মিশে যেতে পারে।
এবার দেখে নিন কয়েকটি মজার ডিটক্স ওয়াটার তৈরির পদ্ধতি:
১. আপেল আর দারচিনি ডিটক্স ওয়াটার:
পাতলা পাতলা করে একটি আপেল কেটে নিন৷ সেই সঙ্গে নিন দেড় ইঞ্চি লম্বামাপের দারচিনির টুকরো৷ আপনার যদি চড়া ফ্লেভার পছন্দ হয়, তা হলে পুরোটা আপেল আর দারচিনি পানিতে দিন৷ ৫০০ মিলি পানিতে ৩-৪ টুকরো আপেল আর এক টুকরো দারচিনি দিলে হালকা একটা ফ্লেভার পাবেন৷
২. পাতিলেবু, আদা, পুদিনা ডিটক্স ওয়াটার:
এক বোতল পানিতে অর্ধেকটা পাতিলেবুর রস চিপে দিন৷ সেই সঙ্গে আদা আর পাতিলেবুর পাতলা স্লাইস যোগ করুন৷ খেয়াল করে ব্যবহার করুন তাজা আদা৷ কিছু পুদিনা পাতাও যোগ করে দিতে পারেন৷ সকালবেলা খালি পেটে এই পানি খেলেও খুব ভালো ফল পাবেন, আপনার হজম সংক্রান্ত সমস্যাও দূর করতে সাহায্য করবে এই ডিটক্স ওয়াটার৷
৩. কমলালেবু আর ব্লুবেরি ডিটক্স ওয়াটার:
তাজা ব্লুবেরি না পেলে কালো আঙুরও ব্যবহার করতে পারেন৷ এক লিটার পানির জন্য দু’টি কমলালেবু পাতলা স্লাইস করে কেটে নিন৷ কমলার কোয়াও ব্যবহার করা যায়৷ সেই সঙ্গে দিন এক কাপ ব্লুবেরি বা আঙুর৷
৪. কমলালেবু, বাতাবিলেবু ডিটক্স ওয়াটার:
দু’টি কমলালেবু কেটে নিন বড়ো বড়ো টুকরো করে৷ অর্ধেকটা বাতাবি কেটে নিন৷ তার পর এক লিটার পানির মধ্যে ফেলে সারা রাত ফ্রিজে রেখে দিন৷ বাতাবিলেবু টক হলে এমনি খাওয়া যায় না সাধারণত৷ পানির মধ্যে দিয়ে খেলে টকভাব চলে যাবে, পুষ্টিগুণটাও পাবেন৷
৫. শসা, পাতিলেবু আর পুদিনা ডিটক্স ওয়াটার:
একটা শসা কেটে নিন, আগে চেখে দেখে নেবেন শসাটা তেতো কিনা৷ সঙ্গে দিন পাতিলেবুর স্লাইস আর পুদিনা৷ ঠান্ডা করে পান করুন, দারুণ ফ্রেশ লাগবে৷
৬. তরমুজ, কিউয়ি, স্ট্রবেরি ডিটক্স ওয়াটার:
এক কাপ তরমুজের টুকরো, গোটা তিনেক মাঝারি আকারের স্ট্রবেরি, একটা কিউয়ি টুকরো করে কেটে নিন৷ সামান্য থেঁতলে ফেলে দিন এক লিটার পানির মধ্যে৷ সঙ্গে পুদিনা বা পাতিলেবুও দিতে পারেন ইচ্ছে করলে৷
সতর্কতা:
ডিটক্স ওয়াটারের যেমন অজস্র গুণ আছে, তেমন কয়েকটি বিষয় খেয়াল রাখাও দরকার৷ 
প্রতিদিন মোটামুটি লিটার পাঁচেক পানিই আপনার শরীরের জন্য যথেষ্ট৷ তার চেয়ে বেশি পরিমাণে পানি খেলে কিন্তু কিডনির উপর অতিরিক্ত চাপ পড়তে পারে৷ তাছাড়া বাড়তি পানির সঙ্গে আপনার শরীরের জন্য একান্ত প্রয়োজনীয় সোডিয়ামও বেরিয়ে যাবে, ফলে খুব ক্লান্ত লাগবে৷ 
পানি কম খেলে যেমন মাসলে ক্র্যাম্প ধরে, অতিরিক্ত পানির কারণেও ঠিক সেটাই হতে পারে৷ তাছাড়া কিডনি কমজোরি হয়ে যাওয়ার ফলে শরীরে বাড়তি পানি জমে গেলেও অনেক সমস্যা দেখা দেবে, তাই যা করবেন ভেবে-চিন্তে করাই ভালো৷ দরকারে আপনার ডাক্তারের সঙ্গে পরামর্শ করে নিন৷
গোটা ফলের কিন্তু কোনও বিকল্প নেই:
আমরা তো আর ফল শুধু স্বাদের জন্য খাই না, তাই মিনারেল, ভিটামিন, ফাইবারও আমাদের শরীরের নানা কাজে লাগে৷ তাই ডিটক্স ওয়াটারের বোতল নিয়ে ঘুরছেন বলে খাদ্যতালিকা থেকে তাজা গোটা ফল একেবারে ছেঁটে ফেলবেন না৷ গোটা ফল চিবিয়ে খাওয়ার কোনও বিকল্প নেই৷ তবে ফলের রস বা নরম পানীয়ের চেয়ে ডিটক্স ওয়াটার নিশ্চিতভাবেই অনেক বেশি স্বাস্থ্যকর৷

আরও পড়ুন

আইটি মেলায় ফ্রি স্মার্ট টিভিসহ নানা পণ্য, প্রবেশও বিনামূল্যে!সুখী হতে কী চাই, জানালেন বিজ্ঞানীরামালয়েশিয়ায় বিয়ের হাট, পাচার হচ্ছেন রোহিঙ্গা তরুণীরাসারার চুমুতে নিষেধাজ্ঞা!বনভোজনের চাঁদা দিতে না পারায় ১৮ শিক্ষার্থী বহিষ্কার
সময় সংবাদের লেখক হতে পারেন আপনিও। আপনার আশপাশে ঘটে যাওয়া যেকোনো ঘটনা, ভ্রমণ অভিজ্ঞতা, ক্যাম্পাসের খবর, তথ্যপ্রযুক্তি, বিনোদন, শিল্প-সংস্কৃতি ইত্যাদি বিষয়ে লেখা পাঠান: somoytvweb@gmail.com ই-মেইলে।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
এক্সক্লুসিভ লাইভ
বিপিএল ২০২০
আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি আর্কাইভ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop