বাংলার সময় প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দুই শিক্ষিকার চুল টানাটানি

২৯-০১-২০২০, ১৭:৫২

রাজশাহী ব্যুরো

fb tw
প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দুই শিক্ষিকার চুল টানাটানি
09
রাজশাহীর পুঠিয়ায় পারিবারিক কলহের জেরে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দুই শিক্ষিকার মারামারির ঘটনা ঘটেছে। এতে একজন আহত হয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়েছেন। এ ঘটনায় বুধবার (২৯ জানুয়ারি) সকালে পুঠিয়া থানায় একটি অভিযোগ দেয়া হয়েছে।
মঙ্গলবার (২৮ জানুয়ারি) দুপুরে উপজেলার গোল্ডগোয়ালী স্কুলে এ ঘটনায় আহত শিক্ষিকার নাম নুরজাহান আক্তার মিনু। তিনি পুঠিয়া পৌরসভার মেয়র রবিউল ইসলাম রবির স্ত্রী। ওই স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতিও মেয়র রবি। অপর শিক্ষিকা সামসুন্নাহার রিনা মেয়রের বড় ভাইয়ের স্ত্রী।
স্কুলের প্রধান শিক্ষক রাখী দেবী ভাদুড়ী বলেন, সহকারী শিক্ষক সামসুন্নাহার রিনা ও নুরজাহান আক্তার মিনু সম্পর্কে আপন জা। তাদের পারিবারিক বিরোধের জেরে স্কুলে এই দুই শিক্ষিকার মাঝে মধ্যেই ঝগড়া হতো। বিষয়টি নিয়ে একাধিকবার উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকেও জানানো হয়েছে। কিন্তু লাভ হয়নি।
তিনি বলেন, মঙ্গলবার দুপুরে টিফিন চলাকালীন দুই শিক্ষিকার মধ্যে ঝগড়া শুরু হয়। এর এক পর্যায়ে তাদের মধ্যে হাতাহাতি ও চুল ছিড়াছিড়ি হয়। এ সময় সহকারি শিক্ষক নুরজাহান আক্তার মিনু মাটিতে পড়ে যান। পরে তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।
মেয়র রবিউল ইসলাম রবি বলেন, আমি যে এই প্রতিষ্ঠানের সভাপতি সেটা মানতে চাই না তার ভাবি ও স্কুলের সহকারি শিক্ষক সামসুনাহার রিনা। তিনি স্কুলে একক প্রভাব খাটানোর চেষ্টা করেন। আমার স্ত্রীকে স্কুলে শারীরিক ও মানসিকভাবে লাঞ্ছিত করেন তিনি। বিষয়টি আমি উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস ও আইনশৃঙ্খলা সভায় একাধিকবার বলেছি। কিন্তু তারা কোনো সুরাহা করছেন না।
রবি বলেন, তার স্ত্রী ৬ মাসের অন্তঃসত্ত্বা। সকলের সামনে তার অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে ব্যাপক মারধর করা হয়েছে। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণের কারণে চিকিৎসকরা তার গর্ভের বাচ্চা নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করছেন।
এ বিষয়ে জানতে স্কুলের সহকারি শিক্ষক সামসুন্নাহার রিনার সঙ্গে মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করে তাকে পাওয়া যায়নি। 
তবে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মীর মোহাম্মদ মামুন অর রশিদ বলেন, পারিবারিক বিষয় নিয়ে স্কুলে শিক্ষিকার মধ্যে হাতাহাতির ঘটনার কথা শুনেছি। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।
পুঠিয়া থানার ওসি রেজাউল ইসলাম বলেন, গন্ডোগোহালী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দুই শিক্ষিকার মধ্যে মারামারির ঘটনার থানায় একটি অভিযোগ দেয়া হয়েছে। সহকারি শিক্ষক নুরজাহান আক্তার মিনু এ অভিযোগ দিয়েছেন। অভিযোগে সহকারি শিক্ষক সামসুন্নাহার রিনা ও তার স্বামীকে আসামি করা হয়েছে। তদন্ত করে আইনী ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।

করোনা ভাইরাস লাইভ

আরও সংবাদ

করোনা ভাইরাস লাইভ ›

লাইভ অনুষ্ঠান বুলেটিন ছবি ভিডিও টিভি আর্কাইভ
বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
সর্বশেষ সংবাদ
অনুসদ্ধান
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop