মহানগর সময় বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের উড়োজাহাজ-যাত্রী বাড়লেও রুট বাড়েনি

০৪-০১-২০২০, ০৪:৩১

হাজেরা শিউলি

fb tw
বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের উড়োজাহাজ-যাত্রী বাড়লেও রুট বাড়েনি
প্রতিষ্ঠার ৪৮ বছরে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের উড়োজাহাজ ও যাত্রী সংখ্যা বাড়লেও রুট বাড়েনি। সেবায়ও কাঙ্ক্ষিত অবস্থানে যেতে পারেনি। এজন্য ব্যবস্থাপনার দুর্বলতা, দুর্নীতি ও কর্মীদের সেবামুখী মনোভাবের অভাবকে দুষছেন বিশ্লেষকরা। তবে গত অর্থবছরে লাভের মুখ দেখায় এটাকে অব্যাহত রাখতে একাধিক নতুন রুট ও বিদ্যমান রুটে সংযোগ ফ্লাইট চালু, অন্য এয়ারলাইন্সের সঙ্গে কোড শেয়ারিং চুক্তিসহ নানামুখী উদ্যোগ নিচ্ছে বিমান কর্তৃপক্ষ।
বিমানবাহিনী থেকে পাওয়া ডিসি-৩ উড়োজাহাজ দিয়ে ১৯৭২ সালের ৪ জানুয়ারি যুদ্ধ বিধ্বস্ত দেশে শুরু হয় বাংলাদেশ বিমানের যাত্রা। অব্যাহত লোকসানের কারণে ২০০৭ সালে কর্পোরেশন থেকে বিমানকে পাবলিক লিমিটেড কোম্পানি করা হয়। নব্বইয়ের দশকে বহরে উড়োজাহাজ বাড়তে থাকলে পর্যায়ক্রমে ২৬টি আন্তর্জাতিক গন্তব্যে ডানা মেলে বিমান। তবে উড়োজাহাজ লিজ বাণিজ্য, রাজনৈতিক বিবেচনায় ফ্লাইট পরিচালনার কারণে ক্রমাগত লোকসানে বন্ধ হয় অধিকাংশ রুট। ৫২টি দেশের সঙ্গে আকাশ সেবা চুক্তি থাকলেও বিমান বর্তমানে যাচ্ছে মাত্র ১৬টি আন্তর্জাতিক রুটে। তবে গেল দু’বছরে বিমানের বহরে যুক্ত হয়েছে ছয়টি ড্রিমলাইনার। এ বছরে আসছে আরও তিনটি ড্যাশ এইট। নতুন একাধিক রুট চালু ও সেবার মান বাড়াতে নানা পরিকল্পনার কথা জানান বিমানের এমডি।
বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মো. মোকাব্বির হোসেন বলেন, এ বছরে আমরা নতুন মেনস্টার শুরু হচ্ছে। এছাড়া আমাদের ঢাকা-ব্যাংকক, ভারতসহ আরও অনেক জায়গায় যাত্রা শুরু করব।
গেল ২০১৮-১৯ অর্থবছরে বিমান মুনাফা করেছে ২১৮ কোটি টাকা। লাভের ধারা অব্যাহত রাখতে দুর্নীতি বন্ধসহ বিভিন্ন পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে বলে জানান তিনি।
বিমানের সাবেক কর্মকর্তারা বলছেন, এর আগে বহরে এক সঙ্গে এতো উড়োজাহাজ পায়নি সংস্থাটি।এ সক্ষমতা কাজে লাগাতে দরকার দক্ষ জনবল, সঠিক পরিকল্পনা ও কর্মীদের সেবার মানসিকতা।
বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স পাইলট অ্যাসোসিয়েশনের সাবেক সভাপতি ক্যাপ্টেন হেলাল বলেন, প্রোপারলি আমাদের রোড প্ল্যানিং করতে হবে। বিমানের ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের বিষয়গুলো লক্ষ্য রাখতে হবে। নতুন করে সবকিছু ঢেলে সাজাতে হবে।
বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের পরিচালক নাফিয ইমতিয়াজউদ্দিন বলেন, টিকিট বিক্রি শুরু করে, যারা চেক করেন প্রত্যেকের সেবামুখী হওয়া দরকার। ম্যানেজম্যান্টকে মনে করিয়ে দিতে হবে যাত্রীদের টাকায় তারা বেতন পায়।
৪৮ বছরে মোট ৫ কোটি ৭১ লাখ যাত্রী পরিবহন করেছে বিমান। বর্তমান বিমানের বহরে উড়োজাহাজ আছে ১৮টি। জুনে তিনটি ড্যাশ এইট আসলে বেড়ে হবে ২১টি।
৪৮ বছরের চিত্র
৪৮ বছরে যাত্রী পরিবহন করেছে ৫ কোটি ৭১ লাখ জন। মুনাফা করেছে ২০ বার। লোকসান করেছে ২৮ বার। সবোর্চ্চ রুট ছিল ২৬টি। ২০১৮-১৯ এ যাত্রী পরিবহন করেছে ২৭ লাখ ৬৭ হাজার ২২ জন।

করোনা ভাইরাস লাইভ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
এক্সক্লুসিভ লাইভ
বিপিএল ২০২০

করোনা ভাইরাস লাইভ

আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি আর্কাইভ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop