মুক্তকথা মেয়েরা তোমরা ভালোবেসো না

২৫-১১-২০১৯, ২০:২২

সালমা তালুকদার

fb tw
মেয়েরা তোমরা ভালোবেসো না
মেয়েটা ছেলেটাকে ভালোবেসে সাথে করে কিছু গয়না ও টাকা পয়সা নিয়ে এসেছিলো নতুন জীবনের খোঁজে। ছেলেটা তার শরীরের মাংসপিণ্ডে কিছুক্ষণের জন্য সুখ খুঁজেছিলো। তারপর মেয়েটিকে হত্যা করে ফেলে রেখে চলে গিয়েছিলো। পরদিন খবরের কাগজে খবরটা ছাপা হয়েছিলো। এভাবেই নিষ্পাপ তাজা প্রাণগুলো দেশের আনাচে কানাচে শেষ হয়ে যাচ্ছে। একজন মায়ের নয় মাসের কষ্টের এভাবেই বলিদান হয় প্রতিনিয়ত।
মেয়েরা তোমরা ভালোবেসো না। তোমাদের যে শরীরের সাথে একটি মনও আছে তার খবর বেশিরভাগ মানুষের অজানা। সবাই তোমার বাহ্যিক সৌন্দর্যে বিমোহিত হয়ে ক্ষণিকের আনন্দ চায়। তারপর মনে পড়ে, তার অন্য জায়গায় আরো অনেক দায়িত্ব আছে। তোমাতে মজে থাকলে তার চলবে না। সুতরাং সে তোমাকে সরাতে চাইবে। তুমি তার বোঝা হবে।
যে ঘটনাটি বললাম সেটি অবশ্য অপরিপক্ব মস্তিষ্কের ঘটনা। এমনও হতে পারে ২৪/২৫ বছরের যে ছেলেটি এই কাণ্ডটি ঘটিয়েছে, সে পারিবারিকভাবে বিপর্যস্ত। হতে পারে পরিবারে ছোটবেলা থেকে এমন কিছু ঘটনার সম্মুখীন সে হয়েছে, যা তাকে আজকে এ ঘটনাটি ঘটানোর জন্য উদ্বুদ্ধ করেছে। সেক্ষেত্রে ছেলেটিকে দায়ী না করে, তার পরিবারকে দায়ী করা উচিৎ।
এমন অনেক পরিবার আছে যেখানে সন্তানের মানসিক বিকাশকে প্রাধান্য দেয়া হয় না। পারিবারিক নানা রকম ঝামেলা, অর্থাৎ বাবা মায়ের ঝগড়া, মনোমালিন্য কি পরিমাণে যে সন্তানের ওপর প্রভাব পড়ে, তা বোঝা যায় সন্তান যখন ভবিষ্যতে কোনো অসৎ কাজে জড়িয়ে যায়; নৈতিকতা বিবর্জিত কোনো কাজ করে। তাহলে কি করে আমরা সেই ছেলে অথবা মেয়ের কাছে ভালো কিছু আশা করতে পারি!
যে মেয়েটি ঘর ছাড়লো, খোঁজ নিলে জানা যাবে তার সাথে তার পরিবারের বন্ধন মজবুত ছিলো না। তার মানসিক পরিবর্তনে পরিবার তার পাশে দাঁড়ায়নি। যার জন্য সে বাইরের অচেনা একটা ছেলেকে আপন করে নিয়েছে। পরিবারের বাইরের কাউকে বিশ্বাস করেছে।
পরিবারের সাথে বন্ধন বলতে আমি বাবা, মা, ভাই, বোনের সাথে এমন একটা সম্পর্কের কথা বলছি, যেখানে কোনো ভয় ভীতি নেই। জীবনের চাওয়া পাওয়া ভালোলাগা মন্দ লাগা যেখানে অকপটে বলা যায়। আর সিদ্ধান্ত নিতেও কষ্ট হয় না। পারিবারিক বন্ধনগুলো একজন ছেলে বা মেয়ের জীবনে ভুলের পরিমাণ কমিয়ে আনে।
বাচ্চা মেয়েগুলো বলি হচ্ছে শুধুমাত্র ভালোবাসাকে কেন্দ্র করে। অথচ ভালোবাসা কত পবিত্র। দুটো মানুষের দুটো মনের মিলন। এই ভালোবাসা এখন কত সস্তা হয়ে গেছে! ভালোবাসার মানে বোঝার আগেই মানুষ ভালোবাসছে। অথচ আপাতদৃষ্টিতে তা মোটেও ভালোবাসা নয়।
মেয়েদের বলবো, তোমরা আগে নিজের ভবিষ্যৎ নিয়ে চিন্তা করো। কিভাবে লেখাপড়া করে নিজের পায়ে দাঁড়ানো যায়। স্বাবলম্বী একটা মেয়ে মাথা উঁচু করে সমাজে যেভাবে বাঁচে, সেভাবে কিন্তু ঘরের কোণায় পড়ে থাকা মেয়েটা বাঁচতে পারে না।
লেখক: স্পেশাল এডুকেটর, প্রয়াস যশোর অঞ্চল
*** প্রকাশিত মতামত লেখকের নিজস্ব। সময় সংবাদের সম্পাদকীয় নীতি বা মতের সঙ্গে লেখকের মতামতের অমিল থাকতে পারে। লেখকের কলামের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে আইনগত বা অন্য কোনও ধরনের কোনও দায় সময় সংবাদ নেবে না।

করোনা ভাইরাস লাইভ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
এক্সক্লুসিভ লাইভ
বিপিএল ২০২০

করোনা ভাইরাস লাইভ

আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি আর্কাইভ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop