বাণিজ্য সময় জাহাজ-কন্টেইনারের বড় জট হচ্ছে চট্টগ্রাম বন্দরে

২০-০৭-২০১৯, ১০:৪৮

কমল দে

fb tw
জাহাজ-কন্টেইনারের বড় জট হচ্ছে চট্টগ্রাম বন্দরে
প্রাকৃতিক দুর্যোগের পাশাপাশি ডেলিভারিতে ধীরগতি এবং যানজটের কবলে পড়ে চট্টগ্রাম বন্দরে জাহাজ ও কন্টেইনারের মারাত্মক জট সৃষ্টি হতে যাচ্ছে। কন্টেইনার রাখার পর্যাপ্ত জায়গা না থাকায় জাহাজগুলোকে পণ্য খালাসে ৮ দিনের বেশি বন্দরে অবস্থান করতে হচ্ছে। বন্দরে বর্তমানে ১১২টি পণ্যবাহী জাহাজ রয়েছে। আর কন্টেইনার রয়েছে ৪২ হাজারের বেশি।
বুধবার রাত পর্যন্ত চট্টগ্রাম বন্দর এবং বহির্নোঙ্গরে পণ্যবাহী জাহাজ রয়েছে ১শ ১২টি। এর মধ্যে বহির্নোঙ্গরে অবস্থানরত ৯৮টি জাহাজের মধ্যে ৫০টি জাহাজ থেকে পণ্য খালাস চলছে। আর খালাসের অপেক্ষায় রয়েছে আরো অন্তত ৪৪টি জাহাজ। এছাড়া বন্দরের প্রধান ১৩টি জেটিতে কন্টেইনারবাহী জাহাজ অবস্থানের পাশাপাশি আরো ৩১টি জাহাজ বন্দরে প্রবেশের অপেক্ষায় রয়েছে।
বাংলাদেশ শিপিং এজেন্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি আহসানুল হক চৌধুরী বলেন, সপ্তাহখানেক বৃষ্টি হওয়ায় আমদানির ডেলিভারি বন্ধ ছিল। এজন্য জাহাজগুলো সময় মতো খালাস করতে পারেনি। এজন্য কন্টেইনার রাখার পর্যাপ্ত জায়গা নেই। সেজন্য জাহাজ জটের সঙ্গে কন্টেইনার জট যোগ হচ্ছে।
চট্টগাম বন্দর কর্তৃপক্ষ প্রতিদিন গড়ে সাড়ে আট হাজার কন্টেইনার ওঠানামা করে। সে সাথে ডেলিভারি হয় চার হাজারের বেশি কন্টেইনার। কিন্তু প্রাকৃতিক দুর্যোগসহ নানা জটিলতায় ডেলিভারি প্রক্রিয়ায় ধীরগতি নেমে আসে তাতেই সৃষ্টি হচ্ছে জটের।
চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের সচিব মো. ওমর ফারুক বলেন, আমাদের জেটির অভ্যন্তরে কন্টেইনার জাহাজ ও বাল্ক জাহাজের ডেলিভারি স্লো ছিল। এছাড়া যেসব মালামাল ভিজলে নষ্ট হতে পারে সেসব নিতে আমদানিকারকরা অনিচ্ছুক ছিলেন।
দেশের আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্যের ৯২ শতাংশ সম্পন্ন হয় এ বন্দর দিয়ে। মাদার ভ্যাসেলগুলো ৭২ ঘন্টার বেশি বন্দরে অবস্থান করলে ১০ থেকে ১৫ হাজার মার্কিন ডলার জরিমানা গুণতে হয়। বন্দরের এ ধীরগতির কারণে চরম ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে ব্যবসায়ীদের।
চট্টগ্রাম চেম্বার অব কমার্সের পরিচালক অঞ্জন শেখর দাশ বলেন, জাহাজ যেটা আগে আউটারে এক দিনের মধ্যেই চলে আসত এখন সেটা আসতে সাত থেকে আট দিন দরকার হয়।
ডায়মন্ড সিমেন্ট লিমিটেডের পরিচালক হাকিম আলী বলেন, বন্দর খালি না হওয়ায় আমরা বড় জাহাজগুলো ভেড়াতে পারছি না। এজন্য বড় জাহাজগুলো আউটারে স্থগিত হয়ে রয়েছে।
গত ১০ থেকে ১৬ জুলাই পর্যন্ত শুধুমাত্র বৃষ্টির কারণে ৩ হাজার ৩শ ১১টি কন্টেইনার প্রাইভেট আইসিডি থেকে বন্দরে আসতে পারেনি, ৫ হাজার ৩শ ১৫টি কন্টেইনার জাহাজে প্রেরণ করা যায়নি এবং ২ হাজার ১শ ৩৬টি কন্টেইনার বন্দরের ইয়ার্ড থেকে প্রাইভেট আইসিডিতে যেতে পারেনি।

করোনা ভাইরাস লাইভ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
এক্সক্লুসিভ লাইভ
বিপিএল ২০২০

করোনা ভাইরাস লাইভ

আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি আর্কাইভ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop