মহানগর সময় সম্ভাবনা থাকলেও শিল্পায়ন হয়নি দক্ষিণ চট্টগ্রামে

২৬-০৪-২০১৯, ১৩:১০

কমল দে

fb tw
ব্যাপক সম্ভাবনা থাকা সত্ত্বেও শুধুমাত্র যথাযথ উদ্যোগের অভাবেই দক্ষিণ চট্টগ্রামে কোনো শিল্পায়ন হয়নি। মূল শহরের কাছাকাছি অবস্থানের পাশাপাশি জায়গার দাম তুলনামূলক কম থাকায় সুযোগ ছিলো পরিকল্পিত শিল্পায়নের। কিন্তু নানা সংকটের অজুহাতে হাতেগোনা কয়েকটি শিল্প প্রতিষ্ঠান ছাড়া তেমন কোনো স্থাপনা নেই এখানে। তবে কর্ণফুলী নদীর তলদেশে টানেলের কাজ শেষ হলে আনোয়ারা এবং কর্ণফুলী এলাকায় অন্তত ৩টি শিল্পাঞ্চল গড়ে উঠবে বলে আশাবাদ ব্যবসায়ী এবং জেলা প্রশাসনের। 
একে তো জনসংখ্যার চাপ, তার উপর সরকারি নীতিমালা'র কারণে জায়গার দাম কয়েকগুণ বেড়ে যাওয়ায় ৬০ বর্গমাইলের এ নগরীতে নতুন শিল্পাঞ্চল গড়ে তোলা কঠিন। এ অবস্থায় শিল্পায়নের ক্ষেত্রে বড় ধরনের ভূমিকা রাখার সুযোগ ছিলো দক্ষিণ চট্টগ্রামের চারটি উপজেলা আনোয়ারা-কর্ণফুলী-পটিয়া এবং বোয়ালখালীর।
ডায়মন্ড সিমেন্ট লিমিটেডের পরিচালক মোহাম্মদ হাকিম আলী বলেন, এখানে জায়গার দামও অনেক কম। গার্মেন্টস শিল্প, স্টিল, খেলনা, চকোলেট এরকম বিভিন্ন ধরনের শিল্প কারখানা এখানে করা যায়। যেহেতু বন্দর অনেক কাছে, যাতায়াতের সুবিধা আছে।
ব্যবসায়ীদের অভিযোগ, বেশ কিছু শিল্প গ্রুপ দক্ষিণ চট্টগ্রামে কারখানার জন্য পরিকল্পনা নিয়েও শেষ পর্যন্ত নানা জটিলতার কারণে পিছিয়ে গেছে। হাতেগোনা কয়েকটি কারখানা থাকলেও তাদেরকেও নানা সমস্যায় পড়তে হয়।
চট্টগ্রাম চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি মাহবুবুল আলম বলেন, যত তাড়াতাড়ি সম্ভব কর্ণফুলী গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানিকে এর দায়িত্ব দেয়া হোক, যাতে তাড়াতাড়ি গ্যাস সংযোগ দেয় হয়। আগামীতে যেন গ্যাস, ওয়াসা ও বিদ্যুৎসহ সব সেবা পর্যাপ্ত থাকে।
নগরীর পতেঙ্গা থেকে জেলার আনোয়ারা'র মধ্যবর্তী কর্ণফুলী নদীর তলদেশে শুরু হয়েছে টানেল নির্মাণের কাজ। আর এ টানেলের ল্যান্ডিং স্টেশন আনোয়ারা'য় গড়ে তোলা হচ্ছে চায়না সিটি নামে নতুন একটি শিল্পজোন।
চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেন বলেন, চাইনিজ ইকোনোমিক জোন রয়েছে, কোরিয়ান ইপিজেড রয়েছে, আরো কয়েকটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান ওখানে রয়েছে, তাদের টার্মিনাল করবে, তারা জেটি করতে চায়, ওখানে পর্যটন অঞ্চলের মতো একটা জায়গা করার পরিকল্পনা রয়েছে, ওখানে একটা সুন্দর টাউনশিপ হবে।
কর্ণফুলী নদীর তীরবর্তী ৩টি উপজেলায় শিল্পায়নের সুবিধার্থে ১২শ’ কোটি টাকা খরচ করে নতুন একটি পানি প্রকল্প করতে যাচ্ছে চট্টগ্রাম ওয়াসা। যেটি ওয়াসার ভাণ্ডালজুড়ি পানি প্রকল্প নামে পরিচিত।
এক সময় বলা হতো, কর্ণফুলী নদীর উপর একটি স্থায়ী সেতু হলে পুরো দক্ষিণ চট্টগ্রামের চিত্রই পালটে যাবে। শাহ আমানত সেতু হয়েছে অন্তত দেড় যুগ আগে, কিন্তু চিত্র কিছুই পালটায় নি। তবে কর্ণফুলী নদীর তলদেশের টানেলকে কেন্দ্র করে এখানকার মানুষ আবার আশায় বুক বাঁধতে শুরু করেছে।

করোনা ভাইরাস লাইভ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
এক্সক্লুসিভ লাইভ
বিপিএল ২০২০

করোনা ভাইরাস লাইভ

আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি আর্কাইভ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop