স্বাস্থ্য অবশেষে চট্টগ্রামে হতে যাচ্ছে ১০০ শয্যার বার্ন এন্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিট

২২-০৭-২০১৮, ১০:৪১

স্বাস্থ্য সময় ডেস্ক

fb tw
অবশেষে চট্টগ্রামে হতে যাচ্ছে একশো শয্যার বিশেষায়িত বার্ন এন্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিট। চীন সরকারের অর্থায়নে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল এলাকায় সম্পূর্ণ আলাদা অবকাঠামোতে এটি নির্মাণ করা হবে। আইসিইউসহ সব ধরণের সুযোগ সুবিধা সম্বলিত ও স্বয়ংসম্পূর্ণ ইউনিট চালু হলে আগুনে পোড়া ও জটিল রোগীদের আর ঢাকামুখী হতে হবে না।
২০১৩ এবং ২০১৪ সাল জুড়ে রাজনৈতিক অস্থিরতায় সারা দেশের মত চট্টগ্রামেও চলন্ত বাস ট্রাকে আগুন দেয়াসহ চলে বিরোধী দলের জ্বালাও-পোড়াও নানা কর্মসূচি। সে ভয়াবহ সময়ে চট্টগ্রাম মেডিকেল হাসপাতালে মাত্র ২৬ হাজার এই বার্ন ইউনিটে প্রতিদিনই ভর্তি হয়েছিল অর্ধশতাধিক আগুনে পোড়া রোগী। তাদের চাপ সামাল দিতে হিমশিম খেতে হয়েছিল কর্তৃপক্ষকে। এছাড়া যন্ত্রপাতি ও লোক সংকটের কারণে খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে চলছে এই বার্ন ইউনিটের কার্যক্রম।
চমেক বার্ন ইউনিট সহকারি রেজিস্টার ডা. নারায়ণ ধর বলেন, 'চট্টগ্রামে এখন পর্যন্ত বার্ন রোগীদেরকে আইসিইউ সুবিধা দেয়ার জন্য কোন ব্যবস্থা হয়নি কিংবা এখনও পর্যন্ত বেড সংরক্ষিত করা হয়নি।'
চমেক বার্ন ইউনিট সহকারি অধ্যাপক ডা. রফিক উদ্দীন বলেন, '২৬ বেডের হাসপাতালে ৮০ জনের মত রোগী ভর্তি থাকে। অনেক সময় জায়গা হয়না। আমরা অনেক অসহায়ত্বে ভুগছি।'
জ্বালাও-পোড়াও ছাড়া চট্টগ্রাম শিল্প নগরী হওয়ায় এখানে প্রায়ই দুর্ঘটনায় দগ্ধ হওয়ার ঘটনা ঘটে। এ অবস্থায় ২০১৬ সালে চীন সরকার নিজেদের অর্থায়নে ১০০ সজ্জার একটি বিশেষায়িত বার্ন ইউনিট নির্মাণের আগ্রহ প্রকাশ করে। পরে পরিদর্শন করে চীনের একটি প্রতিনিধি দল। সম্পূর্ণ নতুন অবকাঠামোতে হাসপাতাল সংলগ্ন ২৭ হাজার বর্গফুটের জায়গায় নির্ধারণ করে প্রতিনিধি দলটি।
চমেক বার্ন ইউনিট বিভাগীয় প্রধান মৃণাল কান্তি সেন বলেন, 'এ সব কিছু আমাদের প্রয়োজন মত আমাদের দিয়ে দিয়েছি। ১০০ সজ্জার জন্য এখন তার ওপর দাঁড়িয়ে তারা ডিজাইনটা করবেন।'
অবকাঠামো, যন্ত্রপাতি ও ২৩ জন লোকবলসহ পুরো প্রস্তাবটি মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে বলে জানান হাসপাতালের পরিচালক।
চমেক পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. জালাল উদ্দিন বলেন, 'মন্ত্রণালয়ে আমাদের এই সুপারিশকে টোটো মেনে নিয়েছে। এটা মন্ত্রণালয় তারা আমার যে প্রস্তাব দিয়েছি, এটা নিয়ে আরো অনেক স্টাডি করেছেন এবং মন্ত্রণালয় সিদ্ধান্ত নেয়ার শেষ পর্যায়।'
দশতলা বিশিষ্ট ভবনটি নির্মাণে ব্যয় হবে ১০০ কোটি টাকা।

করোনা ভাইরাস লাইভ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
সর্বশেষ সংবাদ

করোনা ভাইরাস লাইভ

আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি আর্কাইভ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop