Close (x)

সময় বিশেষ হারিয়ে যাওয়া দুর্লভ মুদ্রা সংরক্ষণ করছেন গাইবান্ধার রাশেদুল

২৫-০৪-২০১৮, ১৫:৫৩

হেদায়েতুল ইসলাম বাবু

fb tw
গান, কবিতা কিংবা নাটকে অনেকেই এক আনা দুই আনার গল্প শুনে থাকলেও বাস্তবে দেখা ভার। পাই, আনা, কড়ি, পয়সার মতো বহু বছর আগে প্রচলন উঠে যাওয়া এমন মুদ্রা সংরক্ষণ করছেন গাইবান্ধার এক যুবক। ঐতিহ্য আর ইতিহাস সম্বলিত দুর্লভ এসব মুদ্রা নতুন প্রজন্মের সামনে তুলে ধরতেই তার এমন উদ্যোগ।
রাশেদুল ইসলাম। পেশায় একজন নরসুন্দর। কিন্তু নেশা তার মুদ্রা সংগ্রহ। এসব মুদ্রা দেখতে গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জের জামাল গ্রামে রাশেদুলের একচালা টিনের বাড়িতে ভীর জমান দুর-দুরান্তের মানুষ। ১৯ শতকে মুদ্রা হিসেবে ব্যবহৃত কড়ি থেকে শুরু করে যুগে যুগে মুদ্রা হিসেবে ব্যবহৃত আনা, পাই, পয়সা সবই আছে তার সংগ্রহে। নতুন প্রজন্মের সাথে হারিয়ে যাওয়া এসব মুদ্রার পরিচয় ঘটাতেই তার এমন উদ্যোগ- জানালেন রাশেদুল।
আশপাশের এলাকা থেকে শুরু করে দুর-দুরান্তের অনেকেই আসেন রাশেদুলের বাড়িতে। সুযোগ পেলে নিজেও গ্রামে-গঞ্জে বেরিয়ে পড়েন। প্রদর্শন করেন তার সংগ্রহে থাকা সীসা, তামা, রুপা ও স্বর্ণমুদ্রার। বর্ণনা করেন যুগে যুগে একেকটি মুদ্রার সাথে জড়িয়ে থাকা ইতিহাস। তার এমন সংগ্রহে মুগ্ধ দর্শকরা।
শুধু, ব্রিটিশ, পাকিস্তান আর বাংলাদেশ নয়। সিঙ্গাপুর, চীন, মালয়েশিয়া, জাপান, কাতার, লিবিয়াসহ ২০টি দেশের প্রায় ১০ হাজার মুদ্রা ও টাকা সংগ্রহ করেছেন রাশেদুল। তার দাবী একটু সহযোগিতা পেলে একটি সংগ্রহশালা করতে চান তিনি। তবে তাকে সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছে  উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা।
টানাটানির সংসারে অষ্টম শ্রেণির বারান্দা পার হতে পারেনি রাশেদুল। সংসারের ঘানি টানতে বেছে নেন নরসুন্দরের পেশা। এরপর ২০০৮ সাল থেকে মুদ্রা সংগ্রহের নেশা পেয়ে বসে তাকে।

করোনা ভাইরাস লাইভ

আরও সংবাদ

করোনা ভাইরাস লাইভ ›

লাইভ অনুষ্ঠান বুলেটিন ছবি ভিডিও টিভি আর্কাইভ
বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
সর্বশেষ সংবাদ
অনুসদ্ধান
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop