মহানগর সময় তীব্র অর্থ সংকটে ভুগছে বসিক, পরিশোধ হচ্ছেনা কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতনও

০৪-০৩-২০১৮, ০৮:৫৮

ফিরদাউস সোহাগ

fb tw
অর্থ সংকট এবং দেনায় জর্জরিত বরিশাল সিটি করপোরেশন। ঠিকমত পরিশোধ হচ্ছেনা কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতনও। বেতনের দাবিতে গত এক বছরে কর্মকর্তা-কর্মচারীরা আন্দোলন করেছে তিনবার। আন্দোলনে ব্যাহত হচ্ছে নাগরিক সেবা। মেয়র বলছেন, প্রয়োজনের তুলনায় দ্বিগুণ কর্মী থাকার কারণেই হচ্ছে এ সমস্যা। আর প্রধান নির্বাহী বলছেন, যাদের কাজ নেই তাদের ছাঁটাই করা উচিত। এদিকে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের নেতারা বলছেন, ছাঁটাইয়ের দায়দায়িত্ব বহন করতে হবে কর্তৃপক্ষকেই।
বরিশাল পৌরসভা ২০০২ সালে সিটি কর্পোরেশনে রূপান্তর হয়। তখন কর্মকর্তা-কর্মচারী ও শ্রমিকের সংখ্যা ছিল সাড়ে সাতশোর মত। ১৬ বছরে এই সংখ্যা দাঁড়িয়েছে বাইশ'শো একত্রিশ জনে। কিন্তু এদের বেতন ঠিকমত পরিশোধ করতে পারছেনা কর্তৃপক্ষ। গত এক বছরে বেতনের দাবিতে তিনবার আন্দোলন করেছেন কর্মকর্তা-কর্মচারীরা।
তীব্র অর্থ সংকটে ভুগছে সিটি কর্পোরেশন। প্রয়োজনের দ্বিগুণ কর্মী থাকায় এমন এ অবস্থা বলে দাবি মেয়রের।
বরিশাল সিটি কর্পোরেশন মেয়র আহসান হাবিব কামাল বলেন, 'প্রতিমাসে আয় দেড় কোটির মত, আর ব্যয় ৩ কোটি টাকা। বিভিন্ন সময় হাজারের বেশি কর্মী নিয়োগ হয়। এদের বেতন-ভাতা দিতে গিয়ে হিমশিম খেতে হচ্ছে।'  

আর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মনে করেন, অপ্রয়োজনীয় কর্মীদের চিহ্নিত করে ছাঁটাই করা উচিৎ।
বরিশাল সিটি কর্পোরেশন প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ওয়াহিদুজজামান বলেন, 'যেসব ট্যাক্সে বৈষম্য আছে, সেগুলো ঠিকমত নির্ণয় করে আদায় করা। এছাড়া যারা যে কাজ করে সেটার স্বচ্ছতা নিয়ে আসা।'  
এ অবস্থায় সমস্যা সমাধানে পদক্ষেপ গ্রহণের দাবি জানান নাগরিক পরিষদের এই নেতার।
বরিশাল নাগরিক সমাজ যুগ্ম সম্পাদক এনায়েত হোসেন চৌধুরী বলেন, 'আমরা অবিলম্বে মেয়রকে অনুরোধ জানাবো, তিনি এই সমস্যার সমাধান করুক। তা না হলে নাগরিক সেবা থেকে বঞ্চিত জনগণ ফুঁসে উঠবে।'
এদিকে ছাটাই হলে এর দায়দায়িত্ব কর্তৃপক্ষকে বহন করতে হবে বলে হুঁশিয়ার করেছেন কর্মকর্তা-কর্মচারীদের এই নেতা।
বরিশাল সিটি কর্পোরেশন কর্মকর্তা-কর্মচারীদের নেতা ও নির্বাহী প্রকৌশলী মুহাম্মদ আনিচুজ্জামান বলেন, 'বিভিন্ন মেয়র বিভিন্ন সময় এই জনবল নিয়োগ দিয়েছেন। এখনকার মেয়রও চার শতাধিক লোক নিয়োগ দিয়ে দিয়েছেন। আমরা সাধারণ লোকজন করি, মাস শেষে বেতন চাই।'
    
মেয়র জানান,এই মুহূর্তে সিটি কর্পোরেশনের বকেয়া ৩শ ৪০ কোটি টাকা। এরমধ্যে কর্মচারীদের বেতন ১২ কোটি, মেয়র ও কাউন্সিলরদের সম্মানী ২ কোটি,বিদ্যুৎ বিল ২৬ কোটি, এবং সাবেক মেয়র ও বর্তমান মেয়রের আমলে ঠিকাদারদের পাওনা ৩শ কোটি টাকা।

করোনা ভাইরাস লাইভ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
এক্সক্লুসিভ লাইভ
বিপিএল ২০২০

করোনা ভাইরাস লাইভ

আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি আর্কাইভ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop