মহানগর সময় দিন দিন বেপরোয়া হয়ে উঠছে ছাত্রলীগ

০১-০৩-২০১৮, ১০:২৩

কমল দে

fb tw
চট্টগ্রামে বেপরোয়া হয়ে উঠছে ছাত্রলীগ। নগর থেকে উত্তর, এমনকি চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়-কোনো ইউনিটই সংঘাত থেকে রক্ষা পাচ্ছে না। প্রতিদিনই আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে সংঘাতে জড়িয়ে পড়ছে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা। ছাত্রলীগের সংঘাতমূলক কর্মকাণ্ডে বিব্রত আওয়ামী লীগ নেতারা। তবে ছাত্রলীগ নেতাদের দাবি, আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতাদের বিরোধের প্রভাব  পড়ার পাশাপাশি ছাত্রলীগকে অতিমাত্রায় ব্যবহারের কারণেই সংঘাত হচ্ছে।
 
চট্টগ্রামে প্রায়ই ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা শ্লোগান-পাল্টা শ্লোগান, হুড়োহুড়ি ও চেয়ার ছুঁড়োছুঁড়ি সংঘাতে জড়িয়ে পড়ছে। প্রয়াত নেতার শোকসভা থেকে সম্মেলন কোনো কিছুই বাদ যাচ্ছে না সংঘাত থেকে। নগর আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে প্রয়াত সাবেক মেয়র ও সভাপতি এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী এবং বর্তমান মেয়র ও সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছিরের বিরোধ দীর্ঘদিনের।
ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের মধ্যে রয়ে গেছে এই দু’নেতার বিরোধের রেশ। সে সঙ্গে পুরো নগর ছাত্রলীগের রাজনীতি নানা গ্রুপ-উপগ্রুপে বিভক্ত। যার জের ধরে গত সোমবার লালদীঘি ময়দানে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।
নগর ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক নুরুল আজিম রনি বলেন, 'ছাত্রলীগের মধ্যে কোন বিরোধ নেই। নগর আওয়ামী লীগের অতীতে যে বিরোধ ছিল, সেই বিরোধকে কেন্দ্র করেই এই সংঘর্ষ।'
উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের নতুন মেরুকরণ অনুযায়ী দলীয় পদ নিশ্চিত করতে মঙ্গলবার ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউটে অনুষ্ঠিত সম্মেলনে বিরোধে জড়িয়ে পড়ে উত্তর জেলা ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা। গণপূর্ত মন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেনের উপস্থিতিতেই সংঘাতে লিপ্ত হয় তারা।  
উত্তর জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি বখতিয়ার সাঈদ ইরান বলেন, 'যারা মনে করছে প্রেসিডিয়াম সেক্রেটারিতে পদবঞ্চিত হবে বা পরাজিত হবে এই পরাজয়কে মেনে না নেয়ার জন্যই তারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে।'
আর চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের বিরোধ মীমাংসা করতে না পেরে শেষ পর্যন্ত কমিটি বিলুপ্ত করা হয়। বরং কমিটি বিলুপ্তের পর চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগ আরো বেশি বেপরোয়া হয়ে প্রক্টর অফিসসহ বিশ্ববিদ্যালয়ে তাণ্ডব চালিয়েছে।
কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন বলেন, 'ছাত্রলীগের কেউ যদি করে থাকে, তাদের যদি প্রশাসনিক ব্যবস্থা নেয়া হোক। যদিও ইতিমধ্যে নেয়া হয়েছে।'
ছাত্রলীগের ধারাবাহিক সংঘাতে বিব্রত আওয়ামী লীগ নেতারা। আদর্শহীন রাজনীতি চর্চার কারণেই ছাত্রলীগ বার বার সংঘাত জড়াচ্ছে বলে অভিযোগ তাদের।
নগর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দিন বলেন, 'এভাবে চলতে পারে না। যত দ্রুত সম্ভব আমাদের থামাতে হবে। আর থামাতে পারলে আমাদেরই উপকৃত হবে।'
উত্তর জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি এম এ সালাম বলেন, 'তারা রাজনীতির যে আদর্শটাই তারা বুঝে উঠতে পারেনি।'
গত কয়েক বছর ধরে বৃহত্তর চট্টগ্রামে ছাত্রলীগের নেতারা একাধিকবার বিরোধে জড়ালেও এখন পর্যন্ত সাংগঠনিকভাবে কোনো শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হয়নি।

করোনা ভাইরাস লাইভ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
এক্সক্লুসিভ লাইভ
বিপিএল ২০২০

করোনা ভাইরাস লাইভ

আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি আর্কাইভ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop